ঝিনাইদহে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় জাহিদুর রহমান তারেক নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সাংবাদিক রেজওয়ানুল ইসলাম বাপ্পি গত মঙ্গলবার রাতে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলাটি করেন।

জাহিদুর রহমানের বাড়ি চুয়াডাঙ্গায়। বর্তমানে ঝিনাইদহ উপশহরপাড়ার সিঅ্যান্ডবি পুকুরপাড় এলাকায় থাকেন। তিনি সাংবাদিক হিসেবে নিজের পরিচয় দেন।
তার বিরুদ্ধে হওয়া মামলায় বলা হয়েছে, গত সোমবার রাত ১১টার দিকে নিজের ফেসবুকে আসামি জাহিদুর বঙ্গবন্ধুকে জড়িয়ে আপত্তিকর একটি পোস্ট দেন। এতে বঙ্গবন্ধুর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে। ঝিনাইদহসহ সারাদেশের বীর মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মানুষের মনে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া জাহিদুর এর আগেও ফেসবুকে সরকারবিরোধী ও সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আপত্তিকর পোস্ট দিয়েছেন। তবে জাতির পিতার অবমাননা কেউ মেনে নিতে পারেনি।

ঝিনাইদহ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম রায়হান জানান, জাহিদুর রহমান কথিত সাংবাদিক। তাকে ঝিনাইদহে অবাঞ্ছিত ঘোষণা এবং তার এ ধৃষ্টতামূলক আচরণের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া প্রয়োজন।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, জাহিদুর তার ফেসবুক থেকে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তি, সরকারি কর্মকর্তা এবং সরকারবিরোধী উস্কানিমূলক পোস্ট দিয়ে ঝিনাইদহ এলাকায় অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে আসছিলেন। তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা হয়েছে। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে।