‘নষ্ট ও আপোষের রাজনীতি’ মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশকে বিভক্ত করেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রকাশক, অ্যাক্টিভিস্ট ও বাম নেতাদের নিয়ে গড়ে উঠা প্ল্যাটফর্ম নিপীড়নের বিরুদ্ধে শাহবাগ।

বৃহস্পতিবার সকালে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের মাঝিপাড়া পরিদর্শনে গিয়ে তারা এই মন্তব্য করেন।  

নিপীড়নের বিরুদ্ধে শাহবাগ’ এর প্রতিনিধি দলে ছিলেন গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক আকরামুল হক, ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি শরিফুজ্জামান শরিফ, প্রকাশক রবীন আহসান, ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ও যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম, ছাত্র ইউনিয়নে সাংগঠনিক সম্পাদক সুমাইয়া সেতু, যুব ইউনিয়নের নেতা মুজাহিদুল হক রিপন, ছড়াকার আরীফ, অ্যাক্টিভিস্ট যুবরাজ, রংপুর জেলা যুব ইউনিয়ন আহ্বায়ক শাহজালাল, যুবনেতা ইশতিয়াক হিমেল, জিয়াউর রহমান।  

এসময় তারা বলেন, ‘এই দেশ মুক্তিযুদ্ধের ফোকাস থেকে সরে গেছে। বিচারহীনতার সুযোগ নিয়ে দেশকে হিন্দু শূন্য করা হচ্ছে, বৌদ্ধ শূন্য করা হচ্ছে, আদিবাসীদের পরিচয় ও ভূমি কেড়ে নেয়া হচ্ছে। 

একটা চক্র সারাদেশে কিছুদিন বিরতি দিয়ে ধর্ম অবমাননার উসিলা তুলে হিন্দুদের বাড়িতে আগুন দিচ্ছে, হত্যা করছে, লুটপাট করছে।’

‘বিচারহীনতার’ সংস্কৃতিতে দায়ী করে তারা বলেন, ‘বছরের পর বছর এটা ঘটে চলেছে কিন্তু তার বিচার হচ্ছে না,এটাই অপরাধের প্রধান সাহসের উৎস। প্রতিটি জায়গার হামলার প্রেক্ষাপট এক- উত্তেজনা ছড়ানোর কৌশল এক এবং হামলাকারীদের উদ্দেশ্য এক। কিন্তু সরকার লোক দেখানো কিছু দৌঁড়াদৌঁড়ি করে দেখায়। আদতে অপরাধের নিষ্পত্তি হয় না।’ 

প্রতিনিধিদল অপরাধীদের দ্রুত বিচারের দাবির পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্তদের গৃহনির্মাণ ওকর্মসংস্থানের জন্য বিশেষ বরাদ্দের দাবি জানান।

বিষয় : নিপীড়নের বিরুদ্ধে শাহবাগ পীরগঞ্জ উপজেলা মাঝিপাড়া

মন্তব্য করুন