ছোট ছোট পোটলা করে গিলে খেয়ে ইয়াবা পাচার করতে গিয়েও সফল হতে পারেনি দুই মাদক ব্যবসায়ী। ধরা পড়েছে ডিবি পুলিশের হাতে। বিশেষ উপায়ে তাদের পেট থেকে বের করা হয়েছে ১ হাজার ২৫০ পিস ইয়াবা। মঙ্গলবার রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার দুজন হলো- রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মাঝবাড়ি ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামের হারুন মণ্ডলের ছেলে পলাশ মণ্ডল ও একই গ্রামের খালেক শেখের ছেলে আলহাজ শেখ।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজবাড়ী ডিবি কার্যালয়ে ডিবি ওসি প্রাণবন্ধু চন্দ্র বিশ্বাস জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পাওয়া যায়, কক্সবাজার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান পাচার হচ্ছে। এ খবর পেয়ে দৌলতদিয়া ঘাটে বিশেষ পুলিশ চেকপোস্ট বসানো হয়। সেখানে সন্দেহভাজন দুজনকে আটক করা  হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা কিছুই স্বীকার করেনি। কিন্তু অসংলগ্ন কথাবার্তায় তাদেরকে এক্স-রে করানো হয়। এক্স-রে রিপোর্টে তাদের পেটের মধ্যে ইয়াবার অস্তিত্ব টের পাওয়া যায়। পরে বিশেষ পদ্ধতিতে পায়ুপথ দিয়ে মোট ৩২টি ইয়াবার পোটলা বের করা হয়।

তিনি আরও জানান, প্রতিটি প্যাকেটে ৪০টি ইয়াবা পলিথিন দিয়ে মুড়িয়ে গিলে খেয়ে পেটের ভেতর ঢুকিয়েছিল ওরা। এ ব্যাপারে মাদক আইনে দুজনের বিরুদ্ধ মামলা হয়েছে। এদের মধ্যে পলাশ মণ্ডলের বিরুদ্ধে মাদক সংক্রান্ত আরও মামলা রয়েছে থানায়।