টুঙ্গিপাড়া পৌর ছাত্রলীগের সহসভাপতিকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

প্রকাশ: ২০ জুলাই ২০২০   

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রনি শেখ -সমকাল

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রনি শেখ -সমকাল

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া পৌর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রনি শেখকে অপহরণের পর হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত বাপ্পি মল্লিক পাশ্ববর্তী নড়াইল জেলার নড়াগাতী উপজেলার মুলশ্রী গ্রামের টুটুল মল্লিকের ছেলে।

রনির পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, বাপ্পি মল্লিক ছাত্রলীগ নেতা রনিকে টুঙ্গিপাড়া থেকে অপহরণ করে নিজের গ্রামে নিয়ে ৫ ঘণ্টা আটক রেখে মারধর ও হত্যার চেষ্টা করেন। খবর পেয়ে টুঙ্গিপাড়া থেকে রনির স্বজনরা তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে। রনি বর্তমানে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

আহত রনি শেখ বলেন, বাপ্পি মল্লিকের মামার বাড়ি টুঙ্গিপাড়ার কাজীবাড়ি। সেই সুবাদে সে আমার পরিচিত। বাপ্পি বেশ কিছুদিন আগে টুঙ্গিপাড়া গ্রামের সাইফুল ইসলাম ও আবু রায়হানের কাছে মোটরসাইকেল বন্ধক রেখে ৬০ হাজার টাকা ধার নেন। নির্ধারিত সময়ে টাকা ফেরত না দিলে সাইফুল ও রায়হান তাকে চাপ দেয়। তখন বাপ্পি গত ১৭ জুলাই  বিকালে টাকা ফেরত দেবে বলে তাদের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোনাপাড়া যেতে বলে। সাইফুল ও রায়হানের ভালো বন্ধু হওয়ার সুবাদে টাকা আনার জন্য আমাকে পাঠায়। আমি সেখানে গেলে আমাকে বাপ্পিসহ আরো  কয়েকজন মিলে অপহরণ করে নড়াগাতী উপজেলার মুলশ্রী গ্রামের নিজ বাড়িতে নিয়ে ৫ ঘণ্টা আটকে রেখে হত্যার উদ্দেশে মারপিট করে। তারা মুক্তিপণ হিসাবে বন্ধক রাখা সেই বাইক ফেরত চায়। এরপর রাত ১১ টার দিকে আমাদের কিছু আত্মীয় গিয়ে সেখান থেকে আমাকে উদ্ধার করে।

এবিষয়ে অভিযুক্ত বাপ্পি মল্লিকের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া গেছে।

টুঙ্গিপাড়া থানার ওসি এ.এফ.এম নাসিম বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তাদের নড়াইলের সংশ্লিষ্ট থানায় অভিযোগ দায়ের করতে পরামর্শ দিয়েছি।