ভোলায় বিপ্লবের ২ স্বজনকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

প্রকাশ: ২২ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ২২ অক্টোবর ২০১৯      

ভোলা প্রতিনিধি

ফাইল ছবি

ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে বিতর্কিত মন্তব্যের ঘটনায় অভিযুক্ত ভোলার বিপ্লব চন্দ্র বৈদ্য শুভর ভগ্নিপতি বিধান মজুমদার ও কাকাতো ভাই সাগর বৈদ্যকে গোয়েন্দা পরিচয়ে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার রাত ৮টায় চরফ্যাশন উপজেলার রোদের হাট থেকে তাদের তুলে নেওয়া হয় বলে দাবি করেছে শুভর পরিবার।

এ ঘটনায় বিধানের বাবা বিনয় মাঝি দুলারহাট থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। তবে ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানান, পুলিশের কেউ তাদেরকে গ্রেফতার বা আটক করেনি।

বিপ্লবের কাকা অসীম বৈদ্য জানান, বিধান মজুমদার চরফ্যাশন উপজেলার রোদের হাটে জুয়েলারির ব্যবসা করেন। সোমবার রাত ৮টার দিকে দোকান থেকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তাকে এবং বিপ্লবের কাকাতো ভাই সাগার বৈদ্যকে তুলে নেওয়া হয়। সাগর বিধানের দোকানে কাজ করেন। তুলে নেওয়ার সময় তাদের মোবাইল ফোন নিয়ে যায় গোয়েন্দা পরিচয় দেওয়া লোকজন। এ ঘটনার পর থেকে তাদের পরিবারে হতাশা ও আতংক বিরাজ করছে।

জিডির কথা স্বীকার করে দুলারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। একজন অফিসার বিষয়টি তদন্ত করছেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী কোনো বাহিনী তাদেরকে তুলে নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেনি।

ভোলায় ডিবির ওসি মো. শহিদুল ইসলাম জানান, তাদের কোনো টিম ওই এলাকায় যায়নি। এমন কোনো ঘটনা তাদের জানাও নেই।

জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার। এ বিষয়ে কিছু জানা নেই বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।