দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের একটি জলমগ্ন আগ্নেয়গিরির উদ্গিরণের পর সৃষ্ট সুনামিতে ক্ষতিগ্রস্ত টোংগা বাকি বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। অগ্ন্যুৎপাতের পর সৃষ্ট সুনামি টোঙ্গার উপকূলগুলোতে আঘাত হানে এবং পুরো দ্বীপটির ফোন ও ইন্টারনেট লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেয়। আগ্নেয়গিরির ছাইয়ে ঢাকা পড়েছে প্রশান্ত মহাসাগরের দ্বীপ দেশটি। 

এ অবস্থায় প্রবাসীরা স্বজনদের খোঁজখবর পাচ্ছেন না। তারা উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছেন। 

ক্ষয়ক্ষতি দেখতে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া সেখানে পর্যবেক্ষণ ফ্লাইট পাঠিয়েছে। সেখানে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে নিউজিল্যান্ডের টিম। টোংগার মূল দ্বীপ টোংগাটাপুর পশ্চিম উপকূলে বেশি ক্ষতি হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদন বলছে, প্রশান্ত মহাসাগরের তলদেশে যে কেবল দিয়ে দেশটি বহির্বিশ্বের সঙ্গে ইন্টারনেটে যুক্ত ছিল তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। টেলিফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ চালু হতে দুই সপ্তাহ লাগতে পারে।

টোংগার একজন নাগরিক যিনি প্রবাসে থাকেন তিনি বিবিসিকে বলছেন, আমরা দেশে স্বজনদের ফোন করছি, কিন্তু যোগাযোগ করতে পারছি না। খুবই উদ্বেগের মধ্যে রয়েছি।

প্রসঙ্গত, প্রশান্ত মহাসাগরে ১৭০টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত টোংগার আয়তন ৭ লাখ বর্গকিলোমিটার। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় এক লাখ।