আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলের দেশগুলোতে ওমিক্রন নামে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন শনাক্ত হওয়ার পর বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞাসহ কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ শুরু করেছে। স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা নতুন এই ভাইসের নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ওমিক্রন’ দেওয়ার পরই দেশগুলো নতুন এই ধরন যেন ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে না পড়তে পারে সেই লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে।  

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, প্রাথমিকভাবে পাওয়া তথ্য-উপাত্ত থেকে বুঝা যাচ্ছে ওমিক্রনে পুনঃসংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকি রয়েছে। খবর বিবিসি অনলাইনের।  

এদিকে শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আমস্টারডামে আসা কয়েকশ’ যাত্রীর করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। দুটি ফ্লাইটে আসা ওই সব যাত্রীর মধ্যে ইতোমধ্যে ৬১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদেরকে বিমান বন্দরের কাছে একটি হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে। নেদারল্যান্ডস কর্তৃপক্ষ বলছে, তাদেরকে আবারও করোনা পরীক্ষা করা হবে। সম্প্রতি দেশটিতে রেকর্ড সংখ্যক মানুষের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে রোববার থেকে দেশটিতে আংশিক লকডাউনের সময় বৃদ্ধি করা হচ্ছে। 

ডব্লিউএইচও ২৪ নভেম্বর প্রথমবার দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনার এই নতুন ধরন পাওয়ার কথা জানায়। এরই মধ্যে বসতোয়ানা, বেলজিয়াম, হংকং ও ইসরায়েলে নতুন এ ধরনটি শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া শনিবার জার্মানি ও চেক রিপাবলিকেও এই ধরনটি শনাক্ত হয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।  

জার্মানির একজন সরকারি কর্মকর্তা টুইটারে এক টুইটে জানান, পরিবর্তিত ওমিক্রন ধরনটি দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্তের পর সেখান থেকে আসা ব্যক্তিদের মাধ্যমে সম্ভবত আমাদের দেশেও চলে এসেছে। 

অন্যদিকে যুক্তরাজ্য ব্রিটিশ, আইরিশ বা যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী ছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, জিম্বাবুয়ে, বসতোয়ানা, লেসোথো এবং ইসোয়াতিনি থেকে দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রও দক্ষিণ আফ্রিকা, বসতোয়ানা, জিম্বাবুয়ে, নামিবিয়া, ইসোয়াতিনি, মোজাম্বিক ও মালাউই থেকে ফ্লাইটের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। সোমবার থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। এর আগে একই ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

এছাড়া অস্ট্রেলিয়া শনিবার ১৪ দিনের জন্য এসব দেশ থেকে ফ্লাইট বাতিল করেছে। আর অস্ট্রেলিয়ান নন এমন ব্যক্তি যারা গত দুই সপ্তাহ ওইসব দেশে কাটিয়েছেন তাদের ওপরও দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। জাপান শনিবার আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলের ওইসব দেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের ১০ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে। এসময়ের মধ্যে তাদের চার বার করোনা পরীক্ষা করা হবে। ভারত দক্ষিণ আফ্রিকা, বসতোয়ানা ও হংকং থেকে আসা ভ্রমণকারীদের কঠোরভাবে পরীক্ষা নিরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে। 

ইরান ওই অঞ্চলের দক্ষিণ আফ্রিকাসহ ছয়টি দেশ থেকে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। আর ওই অঞ্চল থেকে আসা নিজেদের নাগরিকদের করোনা পরীক্ষায় দুই বার নেগেটিভ আসার পর ছাড় পাবে বলে জানিয়েছে দেশটি। ব্রাজিলও আফ্রিকার ছয়টি দেশ থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। কানাডা গত দুই সপ্তাহে আফ্রিকার ওইসব দেশ ভ্রমণ করা বিদেশিদের দেশটিতে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। থাইল্যান্ডও আফ্রিকার আটটি দেশ থেকে দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। 

এদিকে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যোগাযোগ স্থগিত করেছে বাংলাদেশ। শনিবার দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক অডিও বার্তায় সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।