শৈলী

শৈলী


সুন্দর থাকুক চুল

প্রকাশ: ২১ আগস্ট ২০১৯      
আপনি কোন ঋতু পছন্দ করেন? গ্রীষ্ফ্মে পোশাকের স্বাধীনতা, বর্ষায় রোমান্টিক আবহাওয়া, সুন্দর শরতের পাতা, অথবা শীতের আরাধ্য ওভারকোট এবং ফ্যাশন-ফরোয়ার্ড বুটগুলো মনে আসে। প্রতি মৌসুমে আমাদের পছন্দমতো কিছু থাকে।

নতুন মৌসুম মানেই তাপমাত্রার পরিবর্তন। যখনই তাপমাত্রার কোনো পরিবর্তন হয়, তখনই চুলে তার প্রভাব দেখা যায়। আমাদের চুল অনেক সময় শুস্ক ও নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ে। এ সময় মাথার ত্বকেও সমস্যা দেখা দেয়। মাথার ত্বকে চুলকানি হতে পারে। এই পরিবর্তিত আবহাওয়াতে আপনার চুলের পরিচর্যায় আরও বেশি সচেতন হতে হবে।

ডিপ কন্ডিশনার কোনো চুলের যত্নের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং শরৎকালে আরও গুরুত্বপূর্ণ। পরিস্কার চুল রাখা অত্যন্ত জরুরি, তবে শ্যাম্পু করা আপনার চুলকে যে কোনো অকার্যকারিতা থেকে মুক্ত করতে সহায়তা করে। শ্যাম্পুর ফলে চুল শুকনা ঝরঝরে হয়। কারণ শ্যাম্পু প্রাকৃতিক তেল আপনার চুল থেকে দূর করে দেয়। শরৎ আবহাওয়াতে এই পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়। গভীর কন্ডিশনারগুলো ময়েশ্চারাইজিংয়ের মাধ্যমে এই সমস্যা মোকাবেলায় সহায়তা করে। চুলের যত্নের নিয়মিত একটি ডিপ কন্ডিশনার যুক্ত করা আপনার রুটিনে আরও কয়েক মিনিট যোগ করতে পারে, তবে দীর্ঘমেয়াদে এটি অবশ্যই মূল্যবান ভূমিকা রাখবে।

আপনার চুল তৈলাক্ত বা শুকনো যা হোক না কেন, সত্যিই শরতের সময় দৈনিক শ্যাম্পু ব্যবহারে ধোয়া উচিত নয়। বিশেষত আপনার চুল যদি কোঁকড়ানো হয়। চুলকে সুস্থ রাখতে আমাদের প্রাকৃতিক তেল যতটা সম্ভব ব্যবহার করতে হবে। যদি আপনি পরিশ্রম করেন ও ঘাম ঝরান এবং প্রতিদিন ঝর্ণায় ঝাপটানোর দরকার পড়ে। তবে আপনি চুল ধুয়ে ফেলতে এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করতে পারেন। প্রতিদিন ধোয়ার ফলে আপনার চুল এবং মাথার ত্বক শুস্ক হয়ে যাবে। গ্রীষ্ফ্মের তীব্র তাপে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ফলে চুল ভেঙে যেতে পারে। বিভক্ত হওয়া এবং প্রান্তের ভঙ্গুরতা থেকে মুক্তি পেতে অনেক হেয়ার এক্সপার্ট ছয় থেকে আট সপ্তাহ পরপর চুলের প্রান্ত ছেঁটে নেওয়ার পরামর্শ দেন।

সবসময় চেষ্টা করা উচিত চুলকে সূর্যের আলো, রোদ, বৃষ্টি থেকে সুরক্ষিত রাখা। সূর্যের কড়া রোদ, তাপ, ধুলাবালি ইত্যাদি চুলের দুর্দশা ডেকে আনে। ধীরে ধীরে এরা জমাট বাঁধা শুরু করে চুলের গোড়াতে। ফলে শুরু হয় চুল পড়া। তাই এ ঝামেলা থেকে রেহাই পেতে খোলা আকাশের নিচে রোদ কিংবা বৃষ্টিতে চলাচলের সময় ছাতা অথবা ক্যাপ পরা উচিত। এমনকি কাপড় কিংবা ওড়না দিয়ে ঢেকে রাখলেও অনেকাংশে চুল সুরক্ষিত রাখা সম্ভব। অনেকেই চুল মোছার সময় খুব চাপ প্রয়োগ করে মুছে থাকে। এতে বারবার ঘর্ষণের ফলে চুল তার সুস্থতা হারিয়ে ফেলে; গোড়া থেকে ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই চুল মোছার সময় যতটা সম্ভব আলতোভাবে তোয়ালে ব্যবহার করা উচিত।



লেখা : নাইফা উনাইসা