নন্দন

নন্দন


বৃষ্টির সময়

প্রকাশ: ২২ আগস্ট ২০১৯      

এমদাদুল হক মিলটন

বৃষ্টির সময়

তানিয়া বৃষ্টি

'ঈদে প্রায় সব চ্যানেলে অনেক নাটক-টেলিছবি প্রচার হয়, কিন্তু কয়টি কাজ দর্শকের মনে দাগ কাটে? একটা কথা না বললেই নয়- গল্প ভালো হলে সেই নাটক কিংবা টেলিছবি দর্শকের মনে জায়গা করে নেয়। ঈদে গল্পনির্ভর তেমনই কয়েকটি নাটক ও টেলিছবিতে অভিনয় করেছিলাম। যাতে সবারই বেশ প্রশংসা পেয়েছি।' ঈদের কাজ নিয়ে এভাবে বলেন মডেল অভিনেত্রী তানিয়া বৃষ্টি।

পনির খানের 'ডেলিভারি বয়', সাফায়েত মনসুর রানার 'আমাদের সমাজবিজ্ঞান', মোরসালিন শুভর 'বাবা হতে চাই', হাবীব শাকিলের 'অপছন্দের সাতদিন' নাটক ও মিজানুর রহমান আরিয়ানের পরিচালনায় 'কেস ৩০৪০' টেলিছবিতে একেবারেই ভিন্নরূপে হাজির হয়েছিলেন তানিয়া বৃষ্টি।

দুষ্টুমি ভরা শৈশবে মনের গহিনে স্বপ্ন ছিল মিডিয়ায় কাজ করার। একসময় রিয়েলিটি শো'র মাধ্যমে সেই স্বপ্ন পূরণ হলো তানিয়া বৃষ্টির। প্রথমে মডেলিং, টিভি নাটক ও চলচ্চিত্রেও এখন নিয়মিত তিনি। ২০১২ সালে 'ভিট চ্যানেল আই টপ মডেল' দ্বিতীয় রানারআপের পুরস্কার অর্জন করেন তানিয়া। পরে নাটকে নাম লেখান তিনি।

অভিনয় করেছেন অনেক দর্শকপ্রিয় নাটকে। ২০১৫ সালে আকরাম খানের পরিচালনায় 'ঘাসফুল' চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তানিয়া বৃষ্টির বড়পর্দায় অভিষেক। এরপর 'লাভার নাম্বার ওয়ান' ও 'যদি তুমি জানতে' সিনেমা মুক্তি পায়। এই অভিনেত্রীর হাতে বর্তমানে  সোহানুর রহমান সোহানের 'অবলা নারী' নামে একটি সিনেমা রয়েছে। যার কাজ প্রায় শেষ করেছেন তিনি। চলচ্চিত্র ও নাটকের বাইরে মডেলিং জগতের বাসিন্দা তিনি। গ্রামীণফোনের বিজ্ঞাপন দিয়ে শুরু হয় তার মডেলিং ক্যারিয়ার। শাকিব খানের সঙ্গে একটি বিজ্ঞাপনের কাজের সুযোগ পেয়ে হঠাৎ করেই যেন ঝলসে ওঠেন মুন্সীগঞ্জের মেয়ে তানিয়া। তানিয়া নাচ শিখছেন ছোটবেলা থেকেই। অভিনয়ে এসে সেই দক্ষতা কাজে লেগেছে বলে জানান তিনি। নাচে নিয়মিত না হয়ে অভিনয়ে ঝুঁকলেন কেন? 'নিজেকে অভিনেত্রী হিসেবে দেখতে চাইতাম বলেই নাচ আর নিয়মিত করা হয়নি। একসময় মনে হয়েছে অভিনয় করলেই ভালো করব। আর ইচ্ছাটা সেদিকেই বেশি ছিল। এখন অভিনয়ই আমার স্বপ্নসাধনা- বলেন তানিয়া বৃষ্টি।