মানুষের পাশে...

প্রকাশ: ০৪ আগস্ট ২০১৯      

হিমেল আহমেদ

মানুষের পাশে...

মানুষের পাশেই থাকি

বর্ষাকাল মানেই ভোগান্তি। আর বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বৃষ্টিপাত বেড়েছে। হুট করে কালো মেঘ জমছে গগনে। নামছে তুমুল বৃষ্টি। পরক্ষণে বৃষ্টি চলে গিয়ে সূর্য হাজির তার তাপদাহ নিয়ে! বর্তমান ঋতু বর্ষাকাল হলেও গরমের কমতি নেই। আমরা তো থাকি ফ্যানের নিচে কিংবা এসি রুমে! রাস্তায় খেটে খাওয়া মানুষদের কথা ক'জনে ভেবেছে? সম্প্রতি বগুড়ায় উত্তমাশা নামে একটি মানবসেবা সংঘ রিকশাচালকদের মাথায় পরিয়ে দিয়েছে হেড আমব্রেলা। অর্থাৎ মাথায় পরা যায় যে ছাতা। প্রায় ১০০ রিকশাচালকের এই ছাতা বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। মাথায় পরা ছাতা দেওয়ার কারণ জানতে চাওয়ায় সংগঠন থেকে বলা হলো, যেহেতু রিকশাচালকরা দু'হাত দিয়ে রিকশা নিয়ন্ত্রণ করেন, তাই এক হাতে ছাতা ধরার মতো সুযোগ তাদের নেই। এ জন্য মাথায় পরার ছাতা বিতরণ করা হয়েছে। এতে তারা হাতে ছাতা ধরে রাখার ঝামেলা থেকে মুক্তি পাচ্ছেন।

উত্তমাশা একটি অরাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন। সদস্য সবাই শিক্ষার্থী। তাদের একটি পথশিশু স্কুল রয়েছে, যেখানে সমাজের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনামূল্যে শিক্ষা দেওয়া হয়। উত্তমাশা সমাজের অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের সেবা করতে চায়। তারা এ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে। শীতবস্ত্র বিতরণ, পথশিশুদের ঈদের নতুন কাপড় প্রদানসহ বিভিন্ন সামাজিক আয়োজন তারা করে আসছে। উত্তমাশার যা আছে সব তাদের নিজস্ব। সদস্যরাই নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে এসেছেন। যিান যা পারেন, আর্থিক সাহায্য দিয়ে মানবসেবা করে যাচ্ছেন, যা সত্যিই গর্বের বিষয়। না আছে তাদের কোন দাতা সদস্য, না আছে কোনো রাজনৈতিক আশ্রয়। উত্তমাশার মূল উদ্দেশ্য মানবসেবা। তাই তারা রাজনৈতিক আশ্রয় থেকে নিজেদের দূরে রেখেছে। বগুড়ার বিভিন্ন কলেজের ছাত্রছাত্রী স্বেচ্ছায় এগিয়ে আসছেন উত্তমাশার মানবসেবার এ পথচলায়। মানুষের পাশে থেকে মানুষের কল্যাণে এভাবেই এগিয়ে যাবে উত্তমাশা।

পরবর্তী খবর পড়ুন : পথের সাথীকে চিনে নিও

অন্যান্য