২০২০ সালের জুলাই মাসের শেষের দিকে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ তখনও শুরু হয়নি। মানুষের মনে তখন আতঙ্ক, মৃত্যুভয় জেঁকে বসেছে। কিছু মানুষ পেশাগত কারণে বাইরে বের হলেও প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হতে চান না। এমন পরিস্থিতিতেও এক বর্ষামুখর দিনে ক্যামেরা হাতে বেরিয়ে পড়েছিলেন শখের ছবিয়াল শাহরিয়ার আমিন ফাহিম। টানা দু'দিনের বৃষ্টিতে ঢাকার বেশিরভাগ এলাকায় কোথাও হাঁটুপানি তো কোথাও কোমরপানি অবস্থা। তেজগাঁওসহ রাজধানীর বেশ কয়েকটি এলাকায় ছবি তোলা শেষে বাসায় ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এমন সময় এক রিকশাওয়ালা তাকে বললেন, 'মামা! কারওয়ান বাজারও তো ডুবে গেসে, যাইয়া দেখেন।' এক মুহূর্ত দেরি না করে ছবি তুলতে তুলতে ফাহিম পৌঁছে গেলেন কারওয়ান বাজারে। তিনি দেখেন, প্রায় সব দোকানের সামনেই পানি। উপায় না দেখে বেশিরভাগ দোকানি দোকান বন্ধ করে ঘরে ফিরে গেছেন। ফাহিমের চোখ আটকে যায় এক বৃদ্ধ দর্জিকে দেখে। এই প্রতিকূল অবস্থায় পানির মধ্যেই নিজের আয়ের একমাত্র অবলম্বন সেলাই মেশিনে কাজ করে চলেছেন তিনি। দর্জির সামনে দাঁড়িয়ে একজন ব্যক্তি। নিরুপায় হয়েই হয়তো এই হাঁটুপানিতে দর্জির কাছে এসেছেন কাপড় সেলাই করতে। জীবন ও জীবিকার এই অদ্ভুত সুন্দর মুহূর্ত নিজের ফ্রেমে বন্দি করতে ভোলেননি ফাহিম। সেই ছবিটিই এ বছর জাপানের সবচেয়ে পুরোনো এবং সবচেয়ে বড় আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা 'নিকন ফটো কনটেস্ট ২০২০-২১'-এ পুরস্কার জিতে নিয়েছে। প্রতিযোগিতার 'নেক্সট জেনারেশন ক্যাটাগরি'তে 'কারওয়ান বাজার' শিরোনামের ছবির জন্য এ পুরস্কার জিতেছেন বাংলাদেশের তরুণ ফটোগ্রাফার শাহরিয়ার আমিন ফাহিম।

১৯৬৯ সাল থেকে বিশ্বব্যাপী আলোকচিত্রশিল্পীদের জন্য জাপানের ক্যামেরা টেক জায়ান্ট নিকন করপোরেশন প্রতি দুই বছর অন্তর আয়োজন করে আসছে নিকন ফটো কনটেস্ট। এবারের ২০২০-২১ সালের সেশনে নেক্সট জেনারেশন ক্যাটাগরিতে (অনূর্ধ্ব ২৫) বিষয় ছিল 'প্যাশন'। ফাহিম প্রথম বাংলাদেশি ফটোগ্রাফার, যিনি নিকন ফটো কনটেস্টে কোনো ক্যাটাগরিতে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রাপ্ত পুরস্কারটির নাম 'এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ওয়ার্ড' এবং দেশের মাটিতে প্রথমবার তিনি নিকন ট্রফি আনতে যাচ্ছেন। া

মন্তব্য করুন