ঘাস ফড়িং

ঘাস ফড়িং

কাঁকড়া কাণ্ড!

প্রকাশ: ১০ মার্চ ২০২০

পৃথিবীর সব সমুদ্র ও মহাসমুদ্রে নানা জাতির কাঁকড়ার বিচরণ। আবার নদীতে কিংবা পুকুরেও ওদের দেখতে পাওয়া যায়। তবে বলে রাখি, ওরা কিন্তু পরিস্কার পানিতে থাকতেই বেশি পছন্দ করে। তা জগতে মোট কয় প্রজাতির কাঁকড়া রয়েছে, জানো? ভাবছো বুঝি, হবে অল্প কয়েকটা। সাড়ে চার হাজার প্রজাতিরও বেশি! ভাবা যায়!

কাঁ কড়া দশ পায়ের প্রাণী। মানে, ওদের দশটি পা! এর মধ্যে সামনের দুটি পায়ে শক্তি থাকে বেশি। এ পা দুটির নখের জায়গাটি অনেকটা চিমটার মতো! কোনো কিছু আঁকড়ে ধরতে কিংবা কোনো কিছুকে থাবা দিতে এগুলো ওরা ব্যবহার করে। তুমি-আমি-আমরা কাঁকড়ার এটি একটি পা'কেই বেশি ভয় পাই। কেন ভয় পাই? যারা কাঁকড়ার চিমটি খেয়েছো, তারা সেটা ভালোই জানো, তাই না?

তুমি-আমি কারও সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তো সাধারণত তার নাম ধরে ডাক দিই, তাই না? কাঁকড়া একে অপরের সঙ্গে কীভাবে যোগাযোগ করে, জানো? ওই যে, সামনের পা দুটির ডগায় থাকা চিমটা? সেটি দিয়ে শব্দ করে।

ভয়ঙ্কর চিমটার জন্য কাঁকড়াকে খুব ঝগড়াটে প্রাণী বলেই মনে হয়, তাই না? হুম, তা ঠিক! কাঁকড়া খানিকটা ঝগড়াটে বটে! তবে শুধু পুরুষ কাঁকড়াই ঝগড়াটে, নারী কাঁকড়া নয়। হ