দিন রাত্রি

দিন রাত্রি


বিতর্কে ভাইজান

প্রকাশ: ২৫ জুন ২০২০      

সমু সাহা

চলে যাওয়া মানেই প্রস্থান নয়। বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে প্রবাদটি যেন আরও স্পষ্টভাবে উঠে এলো। প্রাণখোলা, হাসিখুশি এই নায়কের মৃত্যু ঘিরে উঠেছে একাধিক প্রশ্ন। যে প্রশ্ন বলিউডে দীর্ঘদিন ধরে ছিল অমীমাংসিত। ভক্তদের অভিযোগ, স্বজনপ্রীতির কালো থাবায় ডুবে গিয়েছিলেন সুশান্ত। মৃত্যুর মাস ছয়েক আগেও তাকে বেশ কয়েকটি সিনেমা থেকে বাদ দেওয়া হয়। আর এর পেছনে হাত ছিল অভিনেতা সালমান খান থেকে শুরু করে পরিচালক ও প্রযোজক করন জোহরসহ আরও অনেকের। শুধু সুশান্ত নয়, অনেক শিল্পী এর আগে এমন পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন। এদের বেশিরভাগের অভিযোগ ছিল সালমান খানের বিরুদ্ধে। সাল্লু ভাইয়ের সঙ্গে অভিনেতা বিবেক ওবেরয়ের বিরোধ বলিউডের অন্যতম আলোচিত ঘটনা। সালমান তখন ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে প্রেমের সমুদ্রে হাবুডুবু খাচ্ছেন। সঞ্জয় লীলা বনসালির 'হাম দিল দে চুকে সনম' ছবিতে সামীর আর নন্দিনীর চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে নাকি সত্যি সত্যি প্রেম করেছেন তারা। সেই সিনেমার মতো তাদের প্রেম হয়। সেখানে তৃতীয় পক্ষ হয়ে ঢুকে পড়েন বিবেক ওবেরয়। যদিও তাতে কোনো লাভ হয়নি। বরং ক্যারিয়ার প্রায় ধ্বংস হওয়ার উপক্রম হয় বিবেকের। কেননা সালমান সম্পর্কে প্রচলিত প্রবাদ আছে- সালমান যেমন ভালো বন্ধু, তেমনি শত্রু হিসেবেও ভয়াবহ। তাই প্রতিভাবান আর সম্ভাবনাময় হয়েও বলিউডে তেমন কিছুই করতে পারেননি বিবেক। তাছাড়া সালমানের প্রেমিকার দিকে নজর দেওয়ার ফল নিশ্চয়ই ভালো হতে পারে না। সে সময় সংবাদ সম্মেলন করে সালমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন বিবেক। সালমান নাকি মদ্যপ অবস্থায় বিবেককে ৪১ বার কল করেছিলেন। এমনকি ঐশ্বরিয়ার পিছু না ছাড়লে খুন করার হুমকিও দিয়েছিলেন।

অনেকে মনে করেন, ২০০৩ সালে সালমানের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ডাকার শাস্তি পাচ্ছেন বিবেক। তাকে বিসর্জন দিতে হয়েছে বলিউডের ক্যারিয়ার। সংগীত তারকা অরিজিত সিংকে সবাই কিছুটা একরোখা হিসেবে জানে। কিন্তু 'ভাইজানের' সঙ্গে পাঙ্গা নেওয়া যাবে না। কিন্তু ক্যারিয়ারের শুরুতেই সালমান খানের সঙ্গে বিবাদে জড়ান অরিজিত সিং। সালমানের সুলতান ছবির 'জাগ ঘুমেয়া' গানটি রেকর্ড করেছিলেন অরিজিত। কিন্তু সালমানের নির্দেশেই বাদ দেওয়া হয় অরিজিতের গান। পরে রাহাত ফতে আলি খানকে দিয়ে সেই গান রেকর্ড করানো হয়। শুধু অভিনয়শিল্পী নয়, নির্মাতাদের ক্যারিয়ার নিয়েও ছড়ি ঘুরিয়েছেন ভাইজান। সম্প্রতি বলিউডের খান পরিবারের বিরুদ্ধে বলেন নির্মাতা অভিনব কাশ্যপ। তিনি সালমান খানের দুই ভাই আরবাজ খান এবং সোহেল খান তার ক্যারিয়ার ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য উঠেপড়ে লাগেন বলে অভিযোগ করেন। তাকে দাবাং সিরিজ থেকে বাদ দেওয়া হয়। শুধু তাই নয়, অভিনব তাদের কথামতো না চললে তাকে খুন করা হবে এবং পরিবারের মহিলা সদস্যদের ধর্ষণ করা হবে বলেও নাকি হুমকি দেওয়া হয়।