বিশ্ব জয়ের পথে...

প্রকাশ: ১৪ জুলাই ২০১৯      

ড. মোহাম্মদ শহীদুর রশিদ ভূঁইয়া

জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড এখন উৎসবে পরিণত হয়েছে। আমাদের শিক্ষার্থীরা ২০১৬-১৭ সালে মেরিট পুরস্কার ও ২০১৮ সালে ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেছে। আমরা এই উন্নতির ধারা অব্যাহত রাখতে চাই। কয়েক ধাপের পরীক্ষায় অসাধারণ প্রতিভাসম্পন্ন প্রতিযোগীদের তুলে আনতে পেরেছি আমরা। আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডে তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক-দু'ধাপে পরীক্ষা হয়। তাত্ত্বিক পর্যায়ে আমাদের শিক্ষার্থীরা বিশ্বমানের দক্ষতা প্রদর্শন করলেও ব্যবহারিক ক্ষেত্রে কিছুটা ঘাটতি চোখে পড়ে। তা আমরা অনেকটা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেছি ২০১৮ সালে সমকালকে পেয়ে। এতে সমকাল ও বাংলাদেশ জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড যৌথভাবে বিজ্ঞানের এ শাখাকে এগিয়ে নিতে কাজ শুরু করেছে। আমাদের প্রত্যাশা, শিক্ষার্থীরা তাদের যোগ্যতা দিয়ে বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশকে গৌরবের সঙ্গে তুলে ধরবে। আন্তর্জাতিক আসরে তাদের সাফল্য দেখে দেশের সাধারণ শিক্ষার্থীরাও জীববিজ্ঞানে আরও আগ্রহী হবে এবং অংশগ্রহণ করবে।
 
-সভাপতি, বাংলাদেশ জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড

পরবর্তী খবর পড়ুন : গর্জে ওঠো হাঙ্গেরিতে

অন্যান্য