শান্তি আলোচনা বাতিলে তালেবানের প্রতিক্রিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের আরও সেনা মরবে

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

আফগানিস্তানে তালেবানের সঙ্গে শান্তি আলোচনা বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গত ৫ সেপ্টেম্বর কাবুলে গাড়িবোমা হামলায় যুক্তরাষ্ট্রের এক সেনাসহ ১২ জন নিহত হলে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শান্তি আলোচনা বাতিল ঘোষণা করেন। এরই প্রতিক্রিয়ায় তালেবান গতকাল সোমবার এক বিবৃতিতে বলেছে, আমাদের কোনো ক্ষতি নেই। আফগানিস্তানে এবার যুক্তরাষ্ট্রের আরও বেশি সেনা নিহত হবে। শান্তি আলোচনা বন্ধ করে তালেবানের ওপর আরও বেশি চাপ দেওয়া হবে, ট্রাম্পের এমন বক্তব্যের পরই তারা এ প্রতিক্রিয়া জানাল। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

আফগানিস্তানে দেড় যুগ ধরে সংঘাতপূর্ণ অবস্থার অবসানের লক্ষ্যে কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের শান্তি আলোচনা চলছিল। আলোচনায় আফগানিস্তান থেকে নিজেদের সামরিক উপস্থিতি প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু গত ৫ সেপ্টেম্বর তালেবানের হাতে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা নিহত হওয়ার পর ট্রাম্প প্রশাসন আলোচনার দ্বার বন্ধ করে দিয়ে আরও বেশি চাপ প্রয়োগের কথা ঘোষণা করে। শান্তি আলোচনা বন্ধের ব্যাপারে ট্রাম্পের ঘোষণার সমালোচনা করে তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, এটা যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের জন্য আরও বেশি ক্ষতির কারণ হবে। বিশ্বব্যাপী যুক্তরাষ্ট্রের সেনা, স্থাপনা ও অন্যান্য স্বার্থে আঘাত হানা বৃদ্ধি পাবে।

আফগানিস্তানে এখন ১৪ হাজার সেনা রয়েছে। কিন্তু ২০০১ সালে দেশটিতে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রাসনের পরও এখন দেশটির আরও অধিকাংশ অঞ্চল তালেবানের নিয়ন্ত্রণে। ফলে পরিস্থিতি বিবেচনায় তালেবানের সঙ্গে সমঝোতার উদ্যোগ নেয় যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা দেশগুলো। কাতারে এরই মধ্যে তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত নয় দফা শান্তি আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।