বিশ্বজয়ে প্রথম সমুদ্র যাত্রার ৫০০ বছর

প্রকাশ: ১১ আগস্ট ২০১৯     আপডেট: ১১ আগস্ট ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

পাঁচশ' বছর আগে ইউরোপীয়রা সমুদ্রপথে বেরিয়ে পড়েছিল দুনিয়া জয়ের নেশায়। ১৫১৯ সালের ১০ আগস্ট পর্তুগিজ নাবিক ফার্দিনান্দ মাগেলান স্পেন থেকে বিশ্বজয়ে প্রথম অভিযাত্রা শুরু করেন। তিনি চেয়েছিলেন সমুদ্রপথে পুরো পৃথিবী একবার চক্কর দিয়ে আসতে। মৃত্যু তাকে সে সুযোগ না দিলেও তার সঙ্গীরা সেটি পূরণ করেন। অবশ্য ইউরোপীয়দের ওইসব অভিযানকে নিছকই দুনিয়া জয়ের নেশা বললে ভুল হবে। এর অন্যতম উদ্দেশ্য ছিল দুনিয়াব্যাপী ইউরোপের উপনিবেশ কায়েম করা। পুঁজির একেবারে বিকাশকালে এভাবে উপনিবেশ কায়েম করে ইউরোপ মূলত বাণিজ্য বাড়ায়, বাজার সম্প্রসারিত করে এবং উপনিবেশগুলোর সম্পদ লুট করে। তথাকথিত ইউরোপীয় আলোকায়ন বা এনলাইটেনমেন্ট ধারা এর পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছিল।

মাগেলান তার পৃথিবী ঘুরে আসার বিষয়টি প্রথম উপস্থাপন করেছিলেন নিজ দেশ পর্তুগালের রাজার কাছে। তিনি তাতে রাজি না হওয়ায় মাগেলান যান স্পেনের রাজা পঞ্চম এমপেরার চার্লসের দরবারে। চার্লস তাকে বলেছিলেন, ইন্দোনেশিয়ার মরিচ সমৃদ্ধ মালাক্কা দ্বীপের পথ খুঁজে বের করতে হবে এবং সেখান থেকে ফিরে আসতে হবে। তবে রাজার এ নির্দেশ অমান্য করে মাগেলান তার বিশ্বজয়ের লক্ষ্যে অটল ছিলেন। ১৫১৯ সালের ১০ আগস্ট মাগেলান পাঁচটি জাহাজ ও ২৩৭ নাবিককে নিয়ে স্পেন থেকে রওনা হন। তবে তার কিছু স্প্যানিশ নাবিক যাত্রাপথেই বিদ্রোহ করেন। এক বছরের মধ্যেই তার বহরের একটি জাহাজ ডুবে যায় এবং অপর একটি জাহাজ স্পেনে ফিরে যায়।

ইতিহাসের পাতায় মাগেলানের নাম উল্লেখ থাকলেও তিনি কিন্তু যাত্রা সম্পন্ন করতে পারেননি। ১৫২১ সালের এপ্রিলে ফিলিপাইনের মাকটান দ্বীপে স্থানীয় আদিবাসীদের সঙ্গে যুদ্ধে তিনি নিহত হন। বাকি অভিযানের নেতৃত্ব দেন স্প্যানিশ ক্যাপ্টেন হুয়ান সেবাস্টিয়ান এলকানো। শেষ পর্যন্ত মাত্র ১৮ জন নাবিক নিয়ে তিনি অভিযান সম্পন্ন করেন। পাঁচটি জাহাজের বাকিগুলোর হদিস না থাকলেও দ্য ভিক্টোরিয়া নামের জাহাজে করে এলকানো স্পেনের সেভিয়ায় ফিরে আসেন ১৫২২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে। মাগেলানের স্বপ্ন পূরণ করেন এলকানো।

বিশ্বব্যাপী পর্তুগিজদের উপনিবেশ স্থাপনের পথপ্রদর্শক ধরা হয় মাগেলানকে। যদিও তিনি নিজ দেশের রাজার সমর্থন পাননি তার অভিযানে। তবে স্পেন মাগেলান ও তার সঙ্গীদের সে বিশ্বজয়ের ঘটনাকে নিজেদের বলে দাবি করে। চলতি বছর অবশ্য দুই দেশ যৌথভাবে মাগেলানের বিশ্বজয় উদযাপনের সিদ্ধান্ত নেয়। সূত্র :এএফপি।