মুন্সীগঞ্জে সাড়ে ৮ কোটি টাকার কারেন্ট জাল জব্দ

প্রকাশ: ১৯ এপ্রিল ২০১৯

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

মুন্সীগঞ্জ শহরের উপকণ্ঠ মুক্তারপুর এলাকায় গতকাল বৃহস্পতিবার পাঁচটি সুতার কারখানায় অভিযান চালিয়ে পাঁচ লাখ ৭৫ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জব্দকৃত কারেন্ট জালের মূল্য ৮ কোটি ৬২ লাখ ৫০ হাজার টাকা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত পরিচালিত অভিযানে ফিশিং সুতার কারখানার মালিক মো. তাজবীরকে আটক করা হয়। অন্যদিকে জব্দকৃত অবৈধ কারেন্ট জালগুলো নয়াগাঁও এলাকার ধলেশ্বরী নদীর তীরে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ফারুক আহম্মেদ জানান, সদর উপজেলার মুক্তারপুর এলাকায় পাঁচটি সুতার কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে পাঁচ লাখ ৭৫ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। এ সময় সদর উপজেলা মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তাসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের খবর পেয়ে সংশ্নিষ্ট সুতার কারখানাগুলোর মালিক ও কর্মচারীরা পালিয়ে গেলেও তাজবীর নামের এক কারখানার মালিককে আটক করা সম্ভব হয়েছে।

সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, আটক তাজবীর মিয়া তিনটি সুতার কারখানার মালিক। এ ছাড়া অন্য দুটি সুতার কারখানা রাজু ও আলম শেখের বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধ কারেন্ট জাল উৎপাদন আইনে মামলা করা হয়েছে। জব্দকৃত অবৈধ কারেন্ট জালের মূল্য আট কোটি ৬২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।