জাতীয় দলের খেলার সময় কোনো ফুটবলার ইনজুরি পড়লে তার চিকিৎসার জন্য ফিফা থেকে আর্থিক সাহায্য পাওয়ার সুযোগ থাকে। এবার সেটা পেয়েছেন ঢাকা আবাহনী লিমিটেডের গোলরক্ষক শহিদুল আলম সোহেল। জাতীয় দলের অনুশীলনে আহত হয়ে দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে থাকায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে 'ফিফা কাব প্রটেকশন স্কিম'-এর আওতায় এক লাখ ৪৭ হাজার টাকা পাচ্ছেন তিনি।

ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ ও এএফসি এশিয়ান কাপ চায়না ২০২৩-এর যৌথ বাছাই পর্বের রাউন্ড টু-এর খেলার আগে জাতীয় দলের অনুশীলনে ইনজুরিতে পড়েছিলেন ঢাকা আবাহনী লিমিটেডের গোলরক্ষক শহিদুল আলম সোহেল। গত ২০ নভেম্বর বাংলাদেশ দলের এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের সময় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুশীলনে চোট পান শহিদুল। যার পরিপ্রেক্ষিতে আবাহনী তাদের এই খেলোয়াড়কে পায়নি এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 'ফিফা কাব প্রটেকশন স্কিম'-এর আওতায় আবাহনীর জন্য ফিফার কাছে আর্থিক সাহায্যের আবেদন করে। ফিফা একাধিক কিস্তিতে এই টাকা অনুদান দিতে রাজি হয়েছে। ফিফা থেকে প্রাপ্ত এই অর্থ জমা হবে ঢাকা আবাহনী লিমিটেডের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে।

এটাই প্রথম নয়। 'ফিফা কাব প্রটেকশন স্কিম'-এর আওতায় এর আগে ফিফা থেকে ২০১৭ সালে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের খেলোয়াড় আতিকুর রহমান ফাহাদের ইনজুরির জন্য আবাহনীর পক্ষে এক লাখ ছয় হাজার টাকা এবং ২০২০ সালে মিডফিল্ডার মাসুক মিয়া জনির ইনজুরির জন্য বসুন্ধরা কিংস ১৩ লাখ ১১ হাজার টাকা পেয়েছিল। ২০২১ সালে নেপালে 'থ্রি নেশন্স কাপে' বসুন্ধরা কিংসের ফুটবলার বিশ্বনাথ ঘোষ ইনজুরিতে পড়েন। তার আর্থিক সাহায্যের বিষয়টি বর্তমানে ফিফার নিকট প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মন্তব্য করুন