জয়ের ৭০ ভাগ নিশ্চয়তা আফগান শিবিরে

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম থেকে

জয়ের ৭০ ভাগ নিশ্চয়তা আফগান শিবিরে

সাকিবের সফল এলবির আবেদন। যাতে কাটা পড়েন আফগান ব্যাটসম্যান ইহসানুল্লাহ। গতকাল চট্টগ্রাম টেস্টে- বিসিবি

এ যেন খাল কেটে কুমির আনার গল্প। আর এই সত্য গল্পটা বললেন আফগানিস্তানের ওপেনিং ব্যাটসম্যান ইব্রাহিম জাদরান। গতকাল তিনি জানালেন, চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে আজ যে তারা এত ভালো খেলছেন সেটা প্রস্তুতির সুফল। এই মাঠে কীভাবে খেললে সফল হওয়া যাবে, দলের কাছে সেই কৌশল 'এ' দলের সফর করা খেলোয়াড়রাই বলেছেন। সে কৌশলটাই কাজে লাগাচ্ছে সফরকারীরা। ব্যক্তিগতভাবে 'এ' দলের হয়ে খেলার অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে রান পেলেন ইব্রাহিম জাদরান, 'এক মাস আগেই বাংলাদেশে খেলেছি 'এ' দলের হয়ে। টিম ম্যানেজমেন্টকে এই কন্ডিশন সম্পর্কে আমার জানা ছিল। যে কারণে ভালো রান করতে পারলাম।' ইব্রাহিমদের সমন্বিত পারফরম্যান্সের কারণেই গতকাল পর্যন্ত ৩৭৪ রানের লিড পেয়েছে আফগানিস্তান। এই রানেই ৭০ ভাগ জয়ের নিশ্চয়তা পাচ্ছেন তারা, 'এখনই ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে ৭০ ভাগ আশাবাদী আমরা।'

বাংলাদেশের এই ভেন্যুতে চারদিনের এবং ওয়ানডে ম্যাচ খেলার পূর্ব অভিজ্ঞতা আছে আফগানিস্তানের টেস্ট দলের অন্তত চারজন ক্রিকেটারের। গত জুলাই মাসে 'এ' দলের হয়ে চট্টগ্রামের এই মাঠে প্রথম শ্রেণির ও লিস্ট 'এ' ক্রিকেট খেলে গেছেন ইব্রাহিমরা। দুই ফরম্যাটেই দারুণ পারফরম্যান্স ছিল দলটির। চারদিনের পরিত্যক্ত ম্যাচে যে এক ইনিংস খেলার সুযোগ হয়েছে, সেখানে ৯৬ রান আছে তার। একই মাঠে লিস্ট 'এ' ক্রিকেটে হার না মানা ৮৬ ও ১২৭ রান করেছেন তিনি। যে মাঠে 'এ' দলের খেলা হয়েছে সেখানে টেস্ট ম্যাচ দেওয়া বিরাট এক রহস্য। আর এই রহস্যজনক সিদ্ধান্তের খেসারত দিতে হচ্ছে টাইগারদের।

প্রথম ইনিংসে রান না পেলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ৮৭ রানের ইনিংস খেলেন ওপেনিং ব্যাটসম্যান ইব্রাহিম। টেস্ট ক্রিকেটের ব্যাটিংয়ের সব কৌশলই দেখালেন তিনি। ১০৮ রানের জুটি করলেন অভিজ্ঞ আসগর আফগানের সঙ্গে। নিজের ইনিংসটি গড়তে প্রায় চার ঘণ্টা খেলে ২০৮টি বল মোকাবেলা করেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। ছয়টি চার ও চারটি ছক্কাও মেরেছেন তিনি। লুজ বল পেলেই সপাটে খেলে সীমানার ওপারে পাঠিয়েছেন তিনি।

প্রথম ইনিংসে ৩৪২ রান করা আফগানিস্তান বাংলাদেশকে অলআউট করে ২০৫ রানে। ১৩৭ রানে এগিয়ে থাকা দলের দ্বিতীয় ইনিংসের রান ৮ উইকেটে ২৩৭। দুই ইনিংস মিলে গতকাল পর্যন্ত লিড পেয়েছে ৩৭৪ রান। এই লিডকে চারশ'র ওপরে নিয়ে যেতে চায় তারা, 'আমাদের লক্ষ্য হলো চারশ'র বেশি লিড নেওয়া। সেখান থেকে আমরা ২০ থেকে ৪০ রান পেছনে আছি। সুতরাং বাংলাদেশের এই রান তাড়া করা সহজ হবে না।'