বয়স বাধা নয় জহুরুলের কাছে

প্রকাশ: ২১ আগস্ট ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক

লম্বা সময় ছিলেন জাতীয় দলের বাইরে। বয়সও হয়ে গেছে ৩২। তবে এর পরও নিজের ফিটনেস নিয়ে একদমই আপস করেননি জহুরুল ইসলাম অমি। জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটারের চেয়েই যে ফিটনেসে তিনি এগিয়ে, সেটার প্রমাণ গত পরশু দিন হয়ে যাওয়া ব্লিপ টেস্টের ফলাফল। সেখানে সর্বোচ্চ ১২.৩ পয়েন্ট পেয়েছেন জহুরুল। ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রতি মৌসুমেই পারফর্ম করে যাওয়া এই ব্যাটসম্যান ডাক পেয়েছেন আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রাথমিক দলে। কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ঘাম ঝরাচ্ছেন প্রতিদিনই। সেইসঙ্গে দেখছেন আবারও জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠে নামার স্বপ্ন। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপচারিতায় গতকাল জহুরুল বললেন, ফিটনেস এবং পারফরম্যান্স ধরে রাখতে পারলে বয়স কোনো বাধা হতে পারে না।

প্রিমিয়ার লীগের গত আসরে ১৫ ম্যাচে ৭৩৫ রান নিয়ে টুর্নামেন্টের চতুর্থ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন জহুরুল। সেই পারফরম্যান্সের সুবাদে এরপর ডাক পেয়েছেন 'এ' দলে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার এসেছেন আফগানিস্তান সিরিজের প্রাথমিক দলে। জানালেন, জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার আশাতেই শুরু করেন প্রতিটি মৌসুম, 'অনেক দিন পর প্রাথমিক স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছি। প্রত্যেক ক্রিকেটারেরই স্বপ্ন থাকে জাতীয় দলে খেলার। আমিও এই স্বপ্ন নিয়েই প্রতিটি মৌসুম শুরু করি। এবার ভালো পারফরম্যান্স করায় প্রাথমিক দলে ডাক পেয়েছি। এখন সবকিছু আমার চেষ্টা এবং ভাগ্যের ওপর নির্ভর করছে। আমি চেষ্টা করছি দিন দিন আরও উন্নতি করার এবং ফিটনেস নিয়ে কাজ করার। বাকিটা নির্বাচকদের ওপরে। উনাদের যদি প্রয়োজন হয়, তাহলে অবশ্যই আমাকে মূল দলে রাখবেন।'

বাংলাদেশের বাস্তবতায় ত্রিশ-বত্রিশ বছর বয়সের পর বেশিরভাগ ক্রিকেটারকেই আর জাতীয় দলের জন্য বিবেচনায় রাখা হয় না। তবে জহুরুল মনে করেন, ফিটনেস ধরে রেখে পারফর্ম করে যেতে পারলে বয়সের বাধা ডিঙানো সম্ভব, 'বয়স আসলে কোনো ব্যাপার নয়। আপনি যদি ফিটনেস ধরে রাখেন এবং ভালো পারফর্ম করেন, তাহলে অবশ্যই বয়স কোনো বাধা হতে পারে না। আমাদের ঘাটতি হলো, আমরা ফিটনেস নিয়ে কাজ করি না। এ কারণে পারফরম্যান্সও ভালো হয় না। পারফরম্যান্স ভালো হলেও অনেক সময়ে এই পর্যায়ে এসে ফিটনেসটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়ায়। সেটা হয়তো আমরা ধরে রাখতে পারি না। টেস্ট সব সময় ক্রিকেটের বড় ফরম্যাট। এখানে ভালো পারফর্ম করা গেলে সব ফরম্যাটে পারফর্ম করা সহজ। তামিমের মতো খেলোয়াড়ের অভাব পূরণ করা কঠিন। তবুও আমি বলব, যেহেতু তামিম নেই, তাই যারাই প্রাথমিক দলে আমরা আছি, তাদের জন্য এটা বড় সুযোগ।'