শাড়ির বো তা ম!

প্রকাশ: ০৯ নভেম্বর ২০১৯      

শুভ মণ্ডল দীপঙ্কর

ছাত্রী- ম্যাডাম আপনার শাড়ির বোতামটা খুবই সুন্দর। আমি জীবনেও এমন অসাধারণ বোতাম দেখিনি।

ম্যাডাম- তোমার রুচিবোধ সত্যিই দারুণ। ক্লাস শেষে আমার রুমে এসো একবার। হলে থাক?

ছাত্রী- জি ম্যাম।

ম্যাডাম- পড়াশোনাটা একটু ঠিকমতো কর তোমরা। আমরা সৃজনশীল মানুষ। ওর মতো এমন দেখার চোখ থাকাই তো প্রয়োজন। কি বলো সবাই? ভাসাভাসা না। ডিটেইল বুঝতে হবে, পড়তে হবে। আইনস্টাইনের কথা তোমাদের মনে নেই বুঝি? তিনি তো  imagination-এর কথা বলেছিলেন। এমন ভুলো মন নিয়ে বসে থাকো বলেই তো বছর শেষে গোল আলু ছাড়া আর কিছুই মেলে না পরীক্ষার খাতায়।

কেউ কেউ- জি ম্যাম। হ্যাঁ ম্যাম।

গুটিকয়েক- পরিবেশটা সুন্দর না? কোনো হৈচৈ আছে? (একজন আরেক জনকে) আচ্ছা দোস্ত, শাড়িতে কি বোতাম থাকে?

জনৈক- হ, থাকে তো। দেখিস নাই তুই? এ জন্যই বলি ক্লাসে মনোযোগ দে। যা নেই তাই দেখতে পারাই তো imagination|  ম্যাডাম তো মাত্রই এ কথা বলল। কই ছিলি তুই।

একজন- (দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে) এ জনমে আমার আর শাড়ির বোতাম দেখা হলো না রে পাগলা। া