ফেসবুক নিচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রাহকের তথ্য

প্রকাশ: ১৪ জানুয়ারি ২০২১

প্রযুক্তি প্রতিদিন প্রতিবেদক

এখন থেকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের তথ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ে নেবে ফেসবুক। গত শুক্রবার থেকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের ফেসবুকের সঙ্গে তথ্য শেয়ার বাধ্যতামূলক করে নোটিফিকেশন দেওয়া হচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপের পপআপ নোটিফিকেশনে বলা হচ্ছে, হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে চাইলে এখন থেকে ব্যবহারকারীকে তাদের তথ্য ফেসবুকের সঙ্গে শেয়ারে রাজি হতে হবে। এজন্য নতুন হালনাগাদ ছেড়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। ফেসবুকের সঙ্গে ডাটা শেয়ারে সম্মত হলে হোয়াটসঅ্যাপ হালনাগাদ করে নিতে হবে। হালনাগাদ না করলে আর হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করা যাবে না। এজন্য হোয়াটসঅ্যাপের সতর্কবার্তা দিয়ে শর্ত মেনে অ্যাপটি হালনাগাদ করে নিতে নয়তো 'আপনি যদি আপনার অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলতে চান' এমন অপশন নির্বাচন করতে বলছে। মূলত ফেসবুকের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান হোয়াটসঅ্যাপ। হোয়াটস্যাপ ছাড়াও স্ন্যাপচ্যাটও ফেসবুকের স্বত্বাধিকারে রয়েছে। ফেসবুকের মালিকানাধীন মেসেজিং প্ল্যাটফর্মগুলোকে একই শৃঙ্খলের মধ্যে আনার প্রচেষ্টা হিসেবে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ব্যবহারকারীদের ডিজিটাল তথ্যের নিরপত্তা ও ব্যক্তিগত গোপনীয়তা নিয়ে কঠোর অবস্থানে থাকায় ইউরোপ ও যুক্তরাজ্যের জন্য এ নিয়ম প্রযোজ্য হচ্ছে না। হোয়াটসঅ্যাপ আপডেট করতে হলেও ইউরোপ ও যুক্তরাজ্যের ব্যবহারকারীদের তথ্যে শেয়ারে বাধ্যবাধকতা রাখেনি ফেসবুক। এ ঘটনাকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের আপসহীন অবস্থানের জয় হিসেবে ধরা হচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপের ২০০ কোটিরও বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে। এ ধরনের শর্তারোপে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এর মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি টেসলা ও স্পেসএক্সপ্রধান এলন মাস্ক বলেছেন, ব্যক্তিগত গোপনীয়তা বজায় থাকে সিগন্যাল ও টেলিগ্রামের মতো এমন অ্যাপ ব্যবহার করা উচিত।