১০ কোটি ভারতীয়র ডাটা কার্ড চুরি

প্রকাশ: ০৯ জানুয়ারি ২০২১

প্রযুক্তি প্রতিদিন প্রতিবেদক

ভারতের প্রায় ১০ কোটি ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডধারীর ডাটা চুরি করে ডার্ক ওয়েবে বিক্রি করেছে হ্যাকাররা। রাজশেখর রাজহরিয়া নামে এক সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ এমন দাবি করেছেন।

ওই সাইবার বিশেষজ্ঞ বলেছেন, ভারতের বেঙ্গালুরুভিত্তিক ডিজিটাল পেমেন্ট গেটওয়ে জাসপের সার্ভার থেকে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ ডাটা হাতিয়ে নিয়ে ডার্ক ওয়েবে বিক্রি করা হয়েছে।

জাসপের ফাঁস হওয়া তথ্যের আকার ২ গিগাবাইট। এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্টের তথ্য। ব্যাংকে ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ডের জন্য যোগাযোগ করা থার্ড পার্টি সেবার মাধ্যমে এসব তথ্য বেহাত হতে পারে। বিপুলসংখ্যক কার্ড ব্যবহারকারীর পিন নম্বরও ফাঁস হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি। এদিকে, হ্যাকিংয়ের ঘটনা স্বীকার করে জাসপে জানিয়েছে, দুর্বৃত্তরা সাইবার হামলার মাধ্যমে গ্রাহকের কার্ডের নম্বর কিংবা আর্থিক তথ্য নিতে পারেনি। ই-মেইল ও ফোন নম্বরের মতো কিছু ডাটা বেহাত হয়েছে তবে সংখ্যাটি কোনোভাবেই ১০ কোটি নয়। বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তাদের সার্ভারগুলোতে হ্যাকিংয়ের চেষ্টাকালীন গত বছরের ১৮ আগস্ট তা শনাক্ত করে তাৎক্ষণিক সেটি নস্যাৎ করা হয়। এ ঘটনায় গ্রাহকের কোনো কার্ড নম্বর, আর্থিক বিবরণী কিংবা আর্থিক লেনদের তথ্য বেহাত হয়নি। পরিবর্তে হ্যাকাররা টক্সট ই-মেইল ও ফোন নম্বর সংবলিত কিছু ডাটা রেকর্ড হাতিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছে। এদিকে সাইবার বিশেষজ্ঞ রাজশেখর বলছেন, ডার্ক ওয়েবে ডাটাগুলো বিটকয়েনের মাধ্যমে বিক্রি করা হয়েছিল। এ বিপুলসংখ্যক ডাটার জন্য হ্যাকাররা টেলিগ্রামের মাধ্যমে যোগাযোগ করেছে। এ অবস্থায় ১০ কোটি কার্ডধারী ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন। উল্লেখ্য আর্থিক তথ্য হ্যাকারদের জন্য অত্যন্ত মূল্যবান। কেননা এ তথ্য তাদের সামনে অবৈধ আয়ের পথ খুলে দেয়।