সীতাকুণ্ড উপজেলার অভ্যন্তরীণ আটটি সড়কে চলাচলকারী সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও টেম্পো থেকে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শ্রমিকদের নাম ভাঙিয়ে প্রতি মাসে একটি চক্র দেড় থেকে দুই লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

বুধবার দুপুরে সীতাকুণ্ড প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে চাঁদাবাজির এই অভিযোগ করেন সীতাকুণ্ড থানা অটোটেম্পো চালক ও সহকারী ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন অটোটেম্পো চালক ও সহকারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. আলীম উল্লাহ (মিঠু)। এতে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদকসহ অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সীতাকুণ্ড উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কানেকটিং আটটি সড়কে তিন শতাধিক সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও টেম্পো চলাচল করে। গরিব মানুষের একমাত্র বাহন এই বাহনগুলো। আর এই গাড়ি থেকে প্রতিদিন ১৫ থেকে ৩০ টাকা করে চাঁদা আদায় করা হয়। ফলে প্রতিদিন ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা পর্যন্ত চাঁদা তোলা হচ্ছে গাড়িগুলো থেকে। মাসে গিয়ে যা দাঁড়ায় দেড় থেকে দুই লাখ টাকা।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, ব্রিকফিল্ড থেকে সীতাকুণ্ড সড়কে চাঁদা আদায় করেন জয়নাল হাজারী ও নুর সোলেমান। গুলিয়াখালী-বিচ টু সীতাকুণ্ড সড়কে সুমন ও আমিন, ছোটদারোহাট টু হাজারী রোডে জব্বার ও মহিউদ্দিন, শেখেরহাট টু সীতাকুণ্ড রোডে মোহাম্মদ নবী, মিরেরহাট টু সীতাকুণ্ড রোডে শামসু চৌকিদার ও মরাদপুর টু সীতাকুণ্ড সড়কে চাঁদা আদায় করে মসিউদ্দৌলা।

অভিযুক্ত মো. নুর সোলেমান বলেন, 'আমি লাইনম্যান হিসেবে টাকা তুলি। এই টাকা শ্রমিকের কল্যাণের জন্য তোলা হচ্ছে। আর যারা এটিকে চাঁদাবাজি বলছে তারাই হচ্ছে আসল চাঁদাবাজ। তারা চাঁদাবাজি করতে না পেরে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছে।'

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. দেলওয়ার হোসেন বলেন, 'ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পূর্বে যেসব থ্রি-হুইলার গাড়ি চলাচল করত সেগুলো মহাসড়কে চলাচল করতে পারে না। কোনো চালক বা হেলপার অভিযোগ করলে অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের সার্জেন্ট আল আমিন বলেন, থ্রি-হুইলার গাড়িগুলো মহাসড়কে চলাচল সম্পূর্ণ নিষেধ। গ্রামীণ সড়কগুলোতে চলাচলকারী এই গাড়ি থেকে চাঁদাবাজির বিষয়টি আমাদের জানা নেই।

টেম্পুচালক রমিজ উদ্দিন বলেন, ব্রিকফিল্ড থেকে সীতাকুণ্ড সড়কে চলাচলকারী গাড়ি থেকে প্রতিদিন ২০ টাকা করে চাঁদা তোলা হয়। এই সড়কে শতাধিক গাড়ি রয়েছে।

মন্তব্য করুন