লামায় পৌর কর্মকর্তা কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচি

প্রকাশ: ০৭ জুলাই ২০১৯      

লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি

লামায় পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রাজস্ব কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন-ভাতাসহ পেনশন এবং জনপ্রতিনিধিদের সম্মানী ভাতা প্রদানের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে।

গত সোমবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত পৌর কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচি পালন করে। বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটির আহবানে সারাদেশের মতো লামা পৌরসভায়ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়।

অবস্থান কর্মসূচি পালনকালে লামা পৌরসভার পক্ষ থেকে সকল ধরনের নাগরিক সেবা বন্ধ ছিল। ফলে পৌরসভায় বিভিন্ন বিষয়ে সেবা নিতে আসা নাগরিকদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।

লামা পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারী অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক নূর মোহাম্মদ জানান, নাগরিক জীবনের জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সকল সেবা পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রদান করলেও মাস শেষে তারা নিয়মিত বেতন পান না। চাকরি শেষে তাদের পেনশনের কোনো নিশ্চয়তা নেই। এ অবস্থায় দেশের বিভিন্ন পৌরসভায় বছরের পর বছর বেতন-ভাতা বকেয়া রয়েছে। নিয়মিত বেতন-ভাতা না পেয়ে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পরিবার-পরিজন নিয়ে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন ও পেনশন প্রথা চালুর দাবিতে দেশব্যাপী পৌরসভা সমূহে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন বাদশা এবং ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. সাইফুদ্দিন। প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ হোসেন বাদশা পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের যৌক্তিক এবং ন্যায্য দাবি মেনে নেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতা প্রদান করলে, পৌর নাগরিকরা যে রাজস্ব প্রদান করেন তা দিয়ে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সম্পাদন করা সম্ভব হবে।