মানিকগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে বড় ভাই শাইজুদ্দিন হত্যা মামলায় ছোট ভাইয়ের মৃত্যুদণ্ডসহ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও মেজ ভাই এবং ভাতিজার এক বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড হয়েছে। মামলার অপর সাত আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে মানিকগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক উৎপল ভট্টাচার্য আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার পুটাইল গ্রামের খৈইমুদ্দিনের ছেলে ছাহের উদ্দিন। এক বছর করে সাজাপ্রাপ্তরা হলেন খৈইমুদ্দিনের ছেলে দলিল উদ্দিন ও তার ছেলে সেলিম।

মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ভাইদের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার পুটাইল গ্রামে ২০১৩ সালের ১২ জুন ভাইয়ের হাতে খুন হন শাইজুদ্দিন। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে আশিম আলী বাদী হয়ে মানিকগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেন। মামলায় ছাহের উদ্দিন, দলিল উদ্দিন, সেলিম, সোহেল, মনজুরুল, নছির উদ্দিন, জিলুক, আসমা বেগম, রূপজান ও রেজাউল করিমকে আসামি করা হয়।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি নিরঞ্জন বসাক জানান, মামলায় মোট ১৮ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। আসামি ছাহের উদ্দিনের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। একই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। আসামির মৃত্যু নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার রায় ঘোষণা করেন বিচারক। দণ্ডপ্রাপ্ত অপর দুই আসামি দলিল উদ্দিন ও তার ছেলে সেলিম দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় তাদের এক বছর করে বিনাশ্রম করাদণ্ড দেওয়া হয়।

আসামি পক্ষের মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট মেজবাউল হক। তিনি বলেন, এ বিষয়ে উচ্চ আদালতে আপিল

করা হবে।

মন্তব্য করুন