ঢাকার ধামরাইয়ের বেলিশ্বরে হিন্দুদের মহাশ্মশানে নিট এইড লিমিটেড নামে একটি কোম্পানি সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে জমি দখলের চেষ্টা ও প্রাণনাশের হুমকির ঘটনায় তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। গত বুধবার রাতে বেলিশ্বর কালিমন্দির ও মহাশশ্মান কমিটির সভাপতি গকুল চন্দ্র পাল বাদী হয়ে থানায় এ লিখিত অভিযোগ দিলেও পুলিশ গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থাই নেয়নি বলে বাদী অভিযোগ করেন।

জানা গেছে, ধামরাইয়ের বেলিশ্বর কালিমন্দির সংলগ্ন ১৮ শতাংশ জমি মহাশশ্মান হিসেবে ব্যবহার করে আসছে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন। গত সোমবার স্থানীয় রতন ও সঞ্জয় বসাকের সহায়তায় বালিথা গ্রামের সুলতান উদ্দিন মহাশশ্মানের সাড়ে ১৩ শতাংশ জমি জোর করে দখল করার জন্য নিট এইড লিমিটেড নামে মহাশশ্মানে একটি সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দেন। এ সময় কালিমন্দির ও মহাশশ্মান কমিটির সাধারণ সম্পাদক খুশি মোহন পাল, সহসভাপতি প্রকাশ চন্দ্র বসাক, রমেশ চন্দ্র পাল, সুভাষ চন্দ্র বসাক বাধা দিলে তাদের হত্যা ও মিথ্যা মামলা দায়ের করার হুমকি দেয়। এর প্রতিবাদেই বেলিশ্বর গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রায় তিন শতাধিক নারী-পুরুষ মঙ্গলবার কালিমন্দির ও মহাশশ্মানের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে। এরপর মহাশশ্মানের জমি রক্ষার দাবিতে ও হত্যার হুমকিদাতাদের বিরুদ্ধে বুধবার রাত ৮টার দিকে মহাশশ্মান কমিটির সভাপতি গকুল চন্দ্র পাল বাদী হয়ে ধামরাই থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন।

মহাশশ্মান কমিটির সভাপতি গকুল চন্দ্র পাল ও সহসভাপতি প্রকাশ চন্দ্র বসাক বলেন, জোর করে মহাশশ্মানের জমি দখল চেষ্টাকারীদের হুমকিতে আমরা এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। কিন্তু থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থাই নেয়নি।

ধামরাই থানার ওসি আতিকুর রহমান বলেন, মহাশ্মশানের জমি দখলের বিষয় নিয়ে ইউএনও-এসিল্যান্ডের কাছে অভিযোগ করলে ভালো হয়।

বিষয় : দখলচেষ্টা

মন্তব্য করুন