রাজাপুরে সড়ক সংস্কার

ঢালাইয়ের সাত দিনেই উঠে গেল পিচ ও পাথর

প্রকাশ: ১১ জুলাই ২০২০

রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি

রাজাপুরের গালুয়ায় ৬৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ২ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভিটুমিন সঠিক পরিমাণে না দেওয়ায় ঢালাইয়ের সাত দিনেই পিচ ও পাথর উঠে গেছে সড়কটির। অভিযোগ পেয়ে উপজেলা এলজিইডি অফিসের কর্মকর্তাদের নির্দেশে ফের ভিটুমিন দিয়ে ঢালাই দেওয়া হয়েছে।

শাহমিয়ার হাট থেকে পশ্চিম পুটিয়াখালী স্কুল পর্যন্ত ২ কিলোমিটার সড়ক সংস্কারের জন্য ৬৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। কাজ বাস্তবায়নের দায়িত্ব পায় ঝালকাঠির এনএম এন্টারপ্রাইজ। স্থানীয়দের অভিযোগ, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় বৃষ্টির মধ্যে পোড়া মবিল, তেল ও নামমাত্র ভিটুমিন দিয়ে তড়িঘড়ি করে সংস্কার কাজ করা হয়েছে। এতে এক সপ্তাহের মধ্যেই পাথর উঠে বেশ কয়েক স্থানে আগের মতো গর্ত হয়ে গেছে। বিষয়টি এলজিইডির কর্মকর্তাদের জানালে সংস্কার করা রাস্তার কয়েকটি স্থানে ফের পিচ ও পাথর দিয়ে নতুন করে ঢালাই দেওয়া হয়। গালুয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার আবুল কালাম জানান, তড়িঘড়ি করে সংস্কার কাজ সম্পন্ন করায় কয়েকটি স্থানের পাথর উঠে গর্ত হয়ে যায়। অভিযোগ করার পর সড়কের কিছু অংশে ভিটুমিন দিয়ে সংস্কার করা হলেও কয়েক দিন বা মাসের মধ্যে আবার বেহাল হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

উপজেলা এলজিইডি অফিসের সার্ভেয়ার সুমন হোসেন জানান, বৃষ্টির পানি পড়ে দু-তিনটি স্থানে সড়কের পাথর উঠে গেলে ঠিক করে দেওয়া হয়েছে। এতে পুরো সড়কের কোনো সমস্যা হবে না। কাজটি সঠিকভাবে তদারকি করা হয়েছে।

ঝালকাঠির এনএম এন্টারপ্রাইজের ঠিকাদার মতিউর রহমান জানান, বৃষ্টির কারণে সংস্কার করা সড়কটির কিছু স্থানে সমস্যা হয়েছিল, তা ঠিক করে দেওয়া হয়েছে।