শিবালয়ে চাঁদা না পেয়ে কলেজ শিক্ষককে মারধর

প্রকাশ: ২৩ মে ২০২০

শিবালয় (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি

শিবালয়ে চাঁদা না পেয়ে সন্ত্রাসীরা কলেজের সহকারী অধ্যাপককে পিটিয়ে আহত করেছে। স্থানীয়রা জানান, শিবালয় সদরউদ্দিন ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক ও ভাকলা গ্রামের ড. উত্তম কুমার সরকার (৫২) গত মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে টেপড়া থেকে রিকশা নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। দশচিড়া টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে পৌঁছালে উলাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুজ্জামান রাকিব, আসিফ মোল্লা, সাগর, রনিসহ পাঁচ-ছয় সন্ত্রাসী রিকশা থামিয়ে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। ওই কলেজ শিক্ষক চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাকে লোহার রড ও লাঠি দিয়ে মারধর করতে থাকে সন্ত্রাসীরা। এ সময় উত্তমের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা দ্রুত পালিয়ে যায়। উত্তম কুমার সরকার জানান, কিসের জন্য চাঁদা দিতে হবে জানতে চাইলে সন্ত্রাসীরা বলে, হিন্দুদের এ দেশে থাকতে হলে চাঁদা দিতে হবে। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসলাম মোল্লা জানান, উলাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুজ্জামানসহ পাঁচ-ছয়জনের একদল সন্ত্রাসী ওই শিক্ষককে মারধর করে আহত করে। তাদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানান তিনি। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, একজন শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা জানাই। এ ঘটনায় ছাত্রলীগের কেউ জড়িত থাকলে তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হবে।