ইজিবাইক চালককে গলা কেটে হত্যা

গোপালগঞ্জ

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক চালক সোহান সিকদারকে (১৬) গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। পরে ইজিবাইক থেকে চারটি ব্যাটারি খুলে নিয়ে যায় হত্যাকারী। গতকাল সোমবার দুপুর ১টার দিকে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার সাতপাড় ভূমি অফিস-সংলগ্ন পুকুর থেকে সোহানের লাশ উদ্ধার করে। রোববার রাতের কোনো এক সময় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

সোহান উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের  নিলখী গ্রামের গোলাম সিকদারের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ একই  ইউনিয়নের গোলাবাড়িয়া গ্রামের আলাল ফরাজীর ছেলে শাওন ফরাজীকে (২৫) আটক করেছে।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বৌলতলী পুলিশ ফাঁড়ির  পরিদর্শক মীর সাজেদুর রহমান জানান, রোববার রাতে শাওন শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে সোহানের ইজিবাইকটি ভাড়া করে। রাতে সোহান বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকজন তাকে বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান পায়নি। সকালে স্থানীয়রা সদর উপজেলার করপাড়ায় মধুমতি নদীর বিলরুট ক্যানেলের খাদে ফেলে দেওয়া ইজিবাইক দেখে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ সোহানের ইজিবাইকটি উদ্ধার করে। নিহতের স্বজনরা শাওনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে হত্যার কথা স্বীকার করে। এ সময় তাকে ধরে পুলিশে দেওয়া হয়। শাওন বৌলতলী ফাঁড়ি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহূত ছুরিটি সাতপাড় ইউনিয়ন ভূমি অফিস-সংলগ্ন পুকুর থেকে উদ্ধার করেছে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, হত্যাকারী শাওন ইজিবাইক চলাক। তার টাকার প্রয়োজনে সে ওই ইজিবাইক চালককে ফুসলিয়ে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার কথা বলে ভাড়া করে। পরে তাকে হত্যা করে ইজিবাইক থেকে ব্যাটারি খুলে নিয়ে গোপালগঞ্জ শহরের গেটপাড়ায় নিয়ে ১৮ হাজার টাকায় বিক্রি করে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে জানিয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছে।