বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মতবিনিময়

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্প্রীতি বাংলাদেশের উদ্যোগে শনিবার বিকেলে 'শতবর্ষের পথে বঙ্গবন্ধু ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ' শীর্ষক মতবিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়। এতে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক খোন্দকার নাসিরউদ্দিন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সচিব নাসিরউদ্দিন আহম্মেদ, মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আলী শিকদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক অসীম কুমার সরকার, অধ্যাপক বিমান বড়ূয়া, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক মিল্টন বিশ্বাস, সাবেক যুগ্ম সচিব মজিবর রহমান আল মামুন, সাবেক জগন্নাথ হল সভাপতি মিহির কান্তি ঘোষাল, খ্রিষ্টান ধর্মীয় নেতা উইলিয়াম প্রলয় সমাদ্দর, জাতীয় ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব ফয়সাল আহসানউল্লাহ, প্রামাণ্য চিত্র পরিচালক আবু সাইফ আহম্মেদ, বশেমুরবিপ্রবির ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. বি কে বালা প্রমুখ।

প্রধান অতিথি পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির হৃদয় স্পর্শ করে বুঝতে পেরেছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের অস্তিত্ব, মর্যাদা এবং শক্তির অন্যতম অবলম্বন হবে বাঙালি সংস্কৃতিপ্রসূত অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রনীতি। বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তারই ধারাবাহিকতায় জাতির পিতার আদর্শের অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ ধরে রাখতে সচেষ্ট।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক খোন্দকার নাসিরউদ্দিন বলেন, পৃথিবীর সবচেয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ বাংলাদেশ। যুগ যুগ ধরে এ দেশের মানুষ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সঙ্গে বসবাস করছে। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নস্যাতের চেষ্টা করা হয়েছে কিন্তু বর্তমান সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অসাম্প্রদায়িক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।