উলিপুরে ত্রাণের টিনে ইউপি সদস্যের ঘর

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ত্রাণের ঢেউটিন তুলে বাড়ি নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে এক নারী ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ঘরবাড়িহীন দরিদ্রের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের কদমতলা গ্রামে।

জানা গেছে, ওই ইউনিয়নের ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য মর্জিনা বেগম দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত ত্রাণের টিন দিয়ে প্রায় ৩২ হাত লম্বা একটি টিনশেড ঘর নির্মাণ করেন।

জানা গেছে, সংশ্নিষ্ট ইউপি সদস্য তার নিজের লোকের নাম তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে টেউটিন বরাদ্দ নেন। পরে তালিকাভুক্ত ব্যক্তিদের হাতে বরাদ্দের আংশিক টাকা তুলে দিয়ে অবশিষ্ট টাকা ও ঢেউটিন নিজের হেফাজতে রাখেন। পরে সেই টিন দিয়ে ঘর নির্মাণ করেন।

ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগম ত্রাণের টিন দিয়ে ঘর তোলার কথা স্বীকার করে বলেন, আমি ৩ জনের কাছ থেকে ৫ বান্ডিল টিন সাড়ে ৪ হাজার টাকায় কিনে নিয়েছি। যাদের কাছ থেকে কিনে নিয়েছেন তাদের নাম জানতে চাইলে তা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি।

হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন বলেন, এগুলো সেনাবাহিনীর দেওয়া ত্রাণের টিন। শুধু মর্জিনা নয়, আরও ২ থেকে ৩ জন ইউপি সদস্য কৌশলে ওইসব টিন আত্মসাৎ করেন। ঘটনাটি ওই সময় তদন্ত করার জন্য প্রক্রিয়া শুরু করা হলেও একপর্যায়ে তা থেমে যায়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুল কাদের বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।