ইন্দুরকানীতে যুবলীগ নেতাকে আটকের পর ছেড়ে দিল পুলিশ

প্রকাশ: ০৭ জুলাই ২০১৮

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

ইন্দুরকানীতে আলোচিত যুবলীগ নেতাকে আটকের আট ঘণ্টা পর ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে বালিপাড়ার বটতলা এলাকা থেকে উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ শামীমকে জমি দখলসহ একাধিক অভিযোগে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে তাকে আট ঘণ্টা পর রাত ১০টায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। শামীমকে থানা থেকে নিয়ে এসে উপজেলা যুবলীগ নেতাকর্মীরা মালা দিয়ে বরণ করে নেয়।

অপরদিকে যুবলীগ নেতা শামীম আটকের পর যুবলীগের অপরাংশের নেতাকর্মীরা বালিপাড়া বাজারে মিষ্টি বিতরণ ও উল্লাস করেন। এদিকে শামীমের আটক এবং পরে ছেড়ে দেওয়া নিয়ে উভয়পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বুধবার যুবলীগ নেতা শামীমের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগসহ একাধিক অভিযোগ এনে পিরোজপুর পুলিশ সুপারের কাছে আবেদন করেন বালিপাড়া গ্রামের খালেক মাঝি।

ইন্দুরকানী থানার ওসি নাসির উদ্দিন জানান, শামীম একটি মামলার সাক্ষী থাকায় তাকে থানায় আনা হয়েছে। বালিপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সহসভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, শেখ শামীম অন্য দল থেকে এসে জমি দখল, ঘর দখলসহ নানা অভিযোগে অভিযুক্ত। খালেক মাঝি নামে এক ব্যক্তির জমি দখল করায় তিনি পুলিশ সুপারের কাছে শামীমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করায় তাকে পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। পরে কেন ছেড়ে দিওয়া হয়েছে তা আমরা জানি না।

যুবলীগ নেতা শেখ শামীম জানান, তাকে একটি মামলার  সাক্ষীর জন্য পুলিশ থানায় এনেছিল। তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ বা মামলা নেই।