চব্বিশ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৭১৬ জন, মৃত্যু ১

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

ডেঙ্গু পরিস্থিতি তুলে ধরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে প্রতিদিনই গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়। এতে বলা হয়, ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা কমছে। হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যাও কমে আসছে। বিজ্ঞপ্তির ওই বক্তব্যের সঙ্গে বাস্তবতার মিল নেই। প্রতিদিনই নতুন করে ৭০০ থেকে ৯০০ মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। চলতি মাসের ৯ দিনে ৭ হাজার ৩৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সে হিসাবে প্রতিদিন গড়ে ৭৮২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই সংখ্যার বিপরীতে হাসপাতাল থেকে যৎসামান্য রোগীকে ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৭১৬ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যাও কমছে না। গতকাল সোমবার আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা ২০২ জনে পৌঁছাল। তবে সরকারিভাবে এখন পর্যন্ত ৬০ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়ে ৭১৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ঢাকায় ৩০০ এবং ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ৪১৬ জন ভর্তি হয়েছেন। চলতি বছর এ পর্যন্ত ৭৭ হাজার ২৩০ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৭৩ হাজার ৯৪২ জন চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছেড়েছেন। দেশের সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ৩ হাজার ৯১ জন রোগী ভর্তি আছেন। তাদের মধ্যে রাজধানীর ৪১ সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে এক হাজার ৫২২ এবং ঢাকার বাইরে বিভাগীয় ও জেলা সদর হাসপাতালে এক হাজার ৫৬৯ জন রোগী চিকিৎসাধীন। ঢাকার বাইরে নতুন রোগী এখনও বেশি ভর্তি হচ্ছেন।

রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল শাপলা খাতুন নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি পুঠিয়া উপজেলার ধাদাস গ্রামে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, শাপলা গত ২ সেপ্টেম্বর জ্বরে আক্রান্ত হন। দু'দিন পর তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তার ডেঙ্গু শনাক্ত হয়। গতকাল দুপুরে তার মৃত্যু হয়েছে।