শিশু ও প্রতিবন্ধীসহ ধর্ষণের শিকার ৫

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

দেশের বিভিন্ন স্থানে শিশু ও প্রতিবন্ধীসহ পাঁচ নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এর মধ্যে ময়মনসিংহের নান্দাইলে প্রতিবন্ধী শিশু, কুড়িগ্রামের উলিপুরে গৃহবধূ, সিলেটের বিশ্বনাথে প্রতিবন্ধী তরুণী, লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ছাড়া গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে শ্বশুরের বিরুদ্ধে প্রতিবন্ধী পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।

সমকালের স্থানীয় প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) :নান্দাইলে এক বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে (৯) ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবেশী রফিকুল বৃহস্পতিবার শিশুটিকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। শুক্রবার ঘটনা জানাজানি হলে আ. হান্নান, বাবলু মাস্টার ও আ. রহিমের নেতৃত্বে গ্রাম্য সালিশে অভিযুক্তকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি জুতাপেটা ও কান ধরে উঠবস করানো হয়। ইউপি সদস্য আ. কালাম বিষয়টি থানায় জানালে পুলিশ শনিবার রাতে শিশুটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। নান্দাইল মডেল থানার ওসি মনসুর আহাম্মদ বলেন, এ ঘটনায় শিশুর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

লক্ষ্মীপুর :লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মামাবাড়ি বেড়াতে যাওয়ার পথে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তিন বখাটের বিরুদ্ধে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় গতকাল রোববার নির্যাতিত শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে পুলিশ। হাজিমারা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যায় চর ইন্দুরিয়া এলাকার রাজিব, রাকিব ও হৃদয়। তারা মেঘনা বাজার এলাকায় একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে হাত-পা বেঁধে আটকে রেখে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। স্থানীয়রা অচেতন অবস্থায় মেয়েটিকে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। তাকে উদ্ধার করে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) :উলিপুরে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে সুমন নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার উমানন্দ মিয়াজীপাড়া গ্রামে। ওই গৃহবধূর স্বামী জীবিকার তাগিদে বেশিরভাগ সময় বাইরে থাকায় প্রতিবেশী  আহসান মিয়ার ছেলে শাহাজাহান আলী সুমন ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। এতে গৃহবধূ অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিষয়টি স্বামীর পরিবারে জানাজানি হয়। এ নিয়ে দাম্পত্য কলহের একপর্যায়ে গৃহবধূ বাবার বাড়িতে চলে আসে। এ ঘটনায় শনিবার গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। উলিপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ায় অভিযুক্ত সুমনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রোববার তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিশ্বনাথ (সিলেট) :ছাতকের রাধানগরে পাতানো মামাতো বোনকে বেড়ানোর কথা বলে নিজের বাড়ি নিয়ে ধর্ষণ করেছে সিলেটের বিশ্বনাথের এক যুবক। এ ঘটনায় শনিবার রাতে মামলা হওয়ার পর অভিযুক্ত ফরিদ মিয়াকে গতকাল গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পেশায় অটোরিকশা চালক ফরিদ বিশ্বনাথ উপজেলার কোনাউরা গ্রামের চেরাগ আলীর ছেলে। বিশ্বনাথ থানার ওসি শামীম মুসা বলেন, মামলার পর অভিযুক্ত ফরিদ মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধর্ষিতাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে।

সাদুল্যাপুর (গাইবান্ধা) :সাদুল্যাপুর উপজেলার ছান্দিয়াপুর গ্রামে শ্বশুরের বিরুদ্ধে প্রতিবন্ধী পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই নারী শ্বশুর গোলজার মিয়ার বিরুদ্ধে শনিবার রাতে থানায় মামলা করেছেন। সাদুল্যাপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, অভিযুক্ত গোলজার মিয়াকে আটকের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে।