শেরপুরে শয়নকক্ষে নারীকে গলা কেটে হত্যা

প্রকাশ: ২৩ আগস্ট ২০১৯

শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুর পৌর শহরের গৌরীপুর মহল্লায় ফরিদা বেগম (৬০) নামে এক নারীকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গত বুধবার রাতে পুলিশ শোবার ঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। ফরিদা বেগম ওই মহল্লার মৃত আবদুস সালামের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফরিদা বেগমের দুই ছেলে শামীম ও সুমন জেলা শহরের সেবা প্যাথলজিক্যাল ল্যাবের মালিক। নাতি শিহাব তার স্ত্রীকে নিয়ে ওই বাসায় থাকেন। তিন দিন আগে শিহাব স্ত্রীকে নিয়ে বেড়াতে যান। এ সময় বাড়িতে ওই ফরিদা বেগম ছাড়া আর কেউ ছিলেন না।

নিহতের ছেলে শামীম হোসেন জানায়, বুধবার রাতে শিহাব কাজ শেষে বাড়ি ফিরে অনেকক্ষণ ডাকাডাকি করলেও তার দাদি কোনো সাড়া দেয়নি। ঘরে তালা দেওয়া ছিল। পরে তালা ভেঙে ঘরে ঢুকে দাদির গলাকাটা লাশ দেখতে পান শিহাব। ঘরের আসবাবপত্র লণ্ডভণ্ড ছিল। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

শেরপুর সদর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, হত্যার ঘটনাটি রহস্যজনক। রহস্য উদ্ঘাটনের চেষ্টা করছি। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।