অবশেষে আইনি বাধা কেটেছে সিলেট চেম্বার নির্বাচন ২১ সেপ্টেম্বর

প্রকাশ: ২১ আগস্ট ২০১৯      

সিলেট ব্যুরো

আইনি বাধা কাটিয়ে অবশেষে সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির নির্বাচন আগামী ২১ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত আগ্রহীরা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। গত সোমবার পর্যন্ত নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র বিক্রির সুযোগ ছিল। কামিল আহমদ নামে চেম্বারের একজন সদস্যের হাইকোর্টে রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচনের তফসিল

দু'মাসের জন্য স্থগিত হয়ে যায়। এতে বহুল প্রত্যাশিত নির্বাচন অনিশ্চিত হয়ে পড়লে অধিকাংশ ব্যবসায়ীর মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশা দেখা দেয়।

উচ্চ আদালতের এই রায়ের বিরুদ্ধে চেম্বার কর্তৃপক্ষ আপিল করলে পূর্বের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হলে নির্বাচন অনুষ্ঠানে আইনি বাধা দূর হয়। গত সোমবার রাতে এ সংক্রান্ত চিঠি আসার পর চেম্বারের নির্বাচনী বোর্ড তফসিল সংশোধন করে মনোনয়নপত্র বিক্রির সময় একদিন বর্ধিত করে। সেই রাতে মুঠোফোনে ক্ষুদেবার্তার মাধ্যমে চেম্বারের সদস্যদের এ তথ্য জানিয়ে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন চেম্বারের নির্বাচনী বোর্ডের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। আগামী ২৬ আগস্ট প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে চূড়ান্ত শুনানির কথা রয়েছে।

নির্বাচনী বোর্ডের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান সমকালকে বলেন, 'সিলেটে ব্যবসায়ীদের এই শীর্ষ সংগঠনের নির্বাচনের মাধ্যমে যোগ্য নেতৃত্ব আসুক- এটাই আমাদের প্রত্যাশা। সব ব্যবসায়ীর সহযোগিতা কামনা করছি।'

সিলেট চেম্বারের প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদ সমকালকে বলেন, 'বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে আমাকে তিন মাসের জন্য প্রশাসকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে ব্যবসায়ীদের প্রতিনিধির হাতে চেম্বারের দায়িত্ব তুলে দিতে চাই। আদালতের রায়ের মাধ্যমে সে পথ সুগম হয়েছে।'

আসাদ উদ্দিন প্রশাসকের দায়িত্ব নেওয়ার পর নির্বাচনী বোর্ড ও আপিল বোর্ড পুনর্গঠন করেন। এর পর ২১ সেপ্টেম্বর নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করে সদস্য নবায়ন, ভোটার তালিকা প্রণয়ন ও প্রকাশ, এ সংক্রান্ত আপত্তি নিষ্পত্তি করা হয়। গত ৮ আগস্ট চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশের মাধ্যমে নির্বাচনের প্রাক-প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়। এই প্রস্তুতির মধ্যে চেম্বারের সদস্য কামিল আহমদ বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে প্রশাসক নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন। সেই রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত ৬ আগস্ট আদালত দু'মাসের জন্য চেম্বারের নির্বাচন স্থগিত করেন।

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর নির্বাচনী বোর্ড আনুষ্ঠানিকভাবে চেম্বারের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করবে।