হাওরের হাসানপুর সেতুতে ডাকাতি পর্যটকরা আতঙ্কে

প্রকাশ: ১১ আগস্ট ২০১৯     আপডেট: ১১ আগস্ট ২০১৯      

কিশোরগঞ্জ অফিস

কিশোরগঞ্জের পর্যটন এলাকা হিসেবে পরিচিত হাওরের হাসানপুর সেতু এলাকায় দেশি অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে দর্শনার্থীদের টাকা-পয়সা, স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল লুট করে নিয়ে গেছে নৌডাকাতরা। শুক্রবার সন্ধ্যায় হাওর ভ্রমণে যাওয়া দুটি নৌকার পর্যটকরা ডাকাতির শিকার হন।

ডাকাত দলের কবলে পড়া দুটি নৌকার একটিতে থাকা জেলা কৃষক লীগ নেতা ও মাদ্রাসা শিক্ষক আবুল হাসেম, আনোয়ার হোসেন ও জহিরুল ইসলাম জানান, তারা একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা ভাড়া করে বালিখলা ঘাট থেকে হাসানপুর সেতু এলাকায় যান। সেখানে সন্ধ্যা ৭টার দিকে দুটি ইঞ্জিনচালিত নৌকায় রামদা, চাপাতি, বল্লমসহ দেশি অস্ত্রে সজ্জিত ডাকাত দল হানা দেয়। ২০/২২ জনের ডাকাত দলটি অস্ত্রের মুখে দুটি নৌকার অন্তত ১৪ জনের কাছ থেকে মোবাইল ফোন, টাকা-পয়সা ও মেয়েদের স্বর্ণালঙ্কার লুট করে। তারা আরও জানান, ঘটনার পর পরই নৌকায় লুকিয়ে ফেলা একটি ফোন থেকে তারা ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশের সহায়তা চান।

কিশোরগঞ্জ সচেতন নাগরিক কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন ফারুকী বলেন, এ সরকারের আমলে অলওয়েদার সড়কসহ ভাসমান সেতু নির্মাণের কারণে হাওরে সৌন্দর্য দেখতে প্রতিদিন শত শত মানুষ বালিখলা ও হাসানপুর ব্রিজে যাচ্ছেন। সেখানে এমন ডাকাতির ঘটনা হাওরে ভ্রমণ পিপাসুদের মধ্যে আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ ব্যাপারে মিঠামইন থানার ওসি মো. জাকির রব্বানী জানান, তার থানা এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। সেখানে এ ঘটনা ঘটেনি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. নাজমুল ইসলাম সোপান বলেন, ডাকাতির বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। করিমগঞ্জ ও মিঠামইন থানাকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।