ত্রাণ বিতরণ সভায় ফখরুল

আ'লীগ নেতাদের কথায় বিএনপি গুরুত্ব দেয় না

প্রকাশ: ২৮ জুলাই ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

 আ'লীগ নেতাদের কথায় বিএনপি গুরুত্ব দেয় না

শনিবার কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার আরাজী ভোগডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর- সমকাল

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকারের লোকজন সবসময় মিথ্যা বলেন। বিএনপি নাকি বন্যা নিয়েও গুজব সৃষ্টি করছে। তারা সবসময় মিথ্যা  বলেন বলে তাদের কথায় গুরুত্ব দেয় না বিএনপি।

বিএনপি কার্যালয়কে 'গুজবের ফ্যাক্টরি' বলে ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্যের জবাবে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল। গতকাল শনিবার বিকেলে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নের আরাজী ভোগডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বন্যাদুর্গতদের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী বিতরণের আগে  স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। এদিন বিএনপি মহাসচিব কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাটের কয়েকটি স্থানে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন।

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা জানান, এখানে ত্রাণ বিতরণ সভায় মির্জা ফখরুল বলেন, কুড়িগ্রাম সবসময় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এবার বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অথচ দুর্ভাগ্যজনকভাবে এখানে সরকারের  যে পরিমাণ সহযোগিতা নিয়ে আসার কথা ছিল, যে উদ্যোগ নেওয়ার কথা ছিল, তার কিছুই লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এই সরকারের কোনো দায়-দায়িত্ব নেই। জনগণের দ্বারা নির্বাচিত নয় বলে দুর্গত মানুষের  পাশে দাঁড়াতে তাদের দ্বিধাদ্বন্দ্ব রয়ে গেছে।

লালমনিরহাট সংবাদদাতা জানান, হাতীবান্ধার পারুলিয়া এলাকায় বন্যার্তদের ত্রাণ বিতরণ শেষে সাংবাদিকদের বিএনপি মহাসচিব বলেন, উজান (ভারত) থেকে পানি আসায় বন্যাকবলিত হয়ে পড়ে নিম্নাঞ্চল। আবার উজানে বাঁধ দিয়ে পানি আটকানোর ফলে খড়ায় পড়ে বাংলাদেশ। তিস্তা নদীর ন্যায্য হিস্যা থেকে বঞ্চিত হয়েছে দেশ। তাদের খুশিমতো পানিপ্রবাহ বাড়িয়ে ও বন্ধ করে ভোগান্তিতে ফেলা হয় আমাদের।

খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকার অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়াকে আটক করেছে। তাদের পদত্যাগের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। পারুলিয়া বাজার এলাকায় ত্রাণ বিতরণ সভায় তিনি আরও বলেন, সরকার ডেঙ্গু দমনে ব্যর্থ হয়ে এটাকে গুজব বলে এড়িয়ে যাচ্ছে। ছেলেধরা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেশে আইন নেই, শৃঙ্খলা নেই। আইনের প্রতি মানুষের আস্থা নেই। পুলিশ নির্বিচারে গুলি করে মানুষ মারছে। তাই সমাজে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে।

এসব অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল মাহমুদ টুকু, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলু, কেন্দ্রীয় সদস্য ব্যারিস্টার হাসান রাজীব প্রধান প্রমুখ। দলের স্থানীয় নেতারাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।