অভিন্ন নদীর পানি ব্যবহারে প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ - আসিফ নজরুল

প্রকাশ: ২৮ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ২৮ জুলাই ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

অভিন্ন নদীর পানি ব্যবহারে প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ - আসিফ নজরুল

শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিরাজুল ইসলাম লেকচার হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অধ্যাপক আসিফ নজরুলসহ অতিথিরা -সমকাল

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার অভিন্ন নদীর পানি ব্যবহার ও ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে গঙ্গা-ব্রহ্মপুত্র-মেঘনা অববাহিকা ভিত্তিক সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক আসিফ নজরুল। তিনি বলেন, এ ক্ষেত্রে নদীর পরিবেশ ও প্রতিবেশগত দিক এবং আন্তর্জাতিক নদী আইনের বিধিবিধানসমূহ অবশ্যই বিবেচনায় নিতে হবে।

গতকাল শনিবার জ্ঞানতাপস আবদুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিরাজুল ইসলাম লেকচার হলে 'নদী, পরিবেশ, আইন ও রাষ্ট্র' শীর্ষক 'অপ্রকাশিত পিএইচডি অভিসন্দর্ভ বক্তৃতা'য় তিনি এসব মন্তব্য করেন। বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. আহরার আহমদ।

একক বক্তৃতায় আন্তর্জাতিক নদী আইনে বিশেষজ্ঞ আসিফ নজরুল বলেন, ভাটির দেশ বাংলাদেশের ৫৪টি নদী ভারত থেকে প্রবাহিত হয়। চার দশকের দর-কষাকষির পরও দুই দেশ শুধু গঙ্গা নদীর পানি বণ্টন বিষয়ে সমঝোতায় পৌঁছাতে পেরেছে। আন্তঃসীমান্ত নদী গঙ্গার পানির ন্যায্য বণ্টনের কথা থাকলেও এই চুক্তিতে ভাটির দেশ বাংলাদেশের পানিসম্পদ, পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য এবং সর্বোপরি আর্থসামাজিক ক্ষয়ক্ষতি বিবেচনায় নেওয়া হয়নি।