বেলাবতে জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম

প্রকাশ: ২৮ জুলাই ২০১৯      

বেলাব (নরসিংদী) প্রতিনিধি

বেলাবতে জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম হয়েছে। গত বুধবার নরসিংদী শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে শিশু দুটির জন্ম হয়। বেলাব উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের হোসেননগর গ্রামের রাজমিস্ত্রি ইসমাইল হোসেন ও সুমি বেগম দম্পতি এই জোড়া লাগানো জমজ শিশুর মা-বাবা।

গতকাল শনিবার জোড়া যমজ শিশু ও মাকে ছাড়পত্র দেওয়ার পর তারা বাড়ি চলে গেছে বলে জানান ভেলানগর সুপ্রিম প্রাইভেট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বাড়ি ফিরে গেলেও শিশু দুটির চিকিৎসা নিয়ে চিন্তিত হতদরিদ্র পরিবারটি।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, চিকিৎসক ফরিদ উদ্দীন এই প্রসূতির অস্ত্রোপচার করেন। পেট ও বুক জোড়া লাগানো শিশুর জন্ম নেওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার শত শত মানুষ তাদের দেখার জন্য হাসপাতালে ভিড় করেন।

হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার পর বর্তমানে যমজ শিশু ও মা সুমি আক্তার তার বাবার বাড়ি রায়পুরা উপজেলার কাশিমনগর গ্রামে থাকছেন। মোবাইল ফোনে কথা হয় শিশুর নানা আ. হামিদের সঙ্গে। তিনি বলেন, অনেক কষ্টে ১০ হাজার টাকা সংগ্রহ করে সিজার করানো হয়েছে। শিশুটির পিতা দরিদ্র। রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। তার ওপর ৫ সদস্যের পরিবারের ভরণপোষণের ভার। আমিও সচ্ছল না। শিশু দুটিকে উন্নত চিকিৎসার মাধ্যমে আলাদা করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনব কীভাবে। এ জন্য তিনি সমাজের বিত্তবান ও সরকারকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান।

প্রসূতির চিকিৎসক ফরিদ উদ্দীন বলেন, বর্তমানে শিশু ও মা উভয়ই সুস্থ আছে। গতকাল হাসপাতাল থেকে তাদের রিলিজ দেওয়া হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করলে তাদের আলাদা করা সম্ভব।