রংপুরে প্রতিপক্ষের আঘাতে চোখ হারালেন যুবক

প্রকাশ: ০৭ জুলাই ২০১৯      

রংপুর অফিস

রংপুরে প্রতিপক্ষের বল্লমের আঘাতে চোখ হারিয়েছে এক যুবক। ঘটনাটি ঘটে গতকাল শনিবার বিকেলে সদর উপজেলার সদ্যপুস্করিণী ইউনিয়নের পালিচড়া নয়াপুকুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একটি মামলা করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ভিটেমাটি না থাকায় দীর্ঘদিন ধরে নয়াপুকুরের সরকারি খাস জমিতে এলাকার হতদরিদ্র দিনমজুর সুজনসহ ১৪টি পরিবার বসবাস করে আসছিল। এলাকার প্রভাবশালী বাবলু ও চান্দু গং খাসজমিতে বাড়ি করতে দেওয়ার জন্য ওই পরিবারগুলোর কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়। কিন্তু হঠাৎ করে পরিবারগুলোর চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয় বাবলু ও চান্দু। গতকাল শনিবার বিকেলে সুজনসহ ভুক্তভোগী ১৪ পরিবার বাবলু ও চান্দুর কাছে রাস্তা সচল করার জন্য বলতে গেলে তারা সুজনের ওপর চড়াও হয়। বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে বাবলু লোহার বল্লম দিয়ে সুজনের চোখে পরপর দু'বার আঘাত হানে। পরে খবর পেয়ে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে এসে সুজনকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে সুজন হাসপাতালের চক্ষু বিভাগে ভর্তি রয়েছে। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, গুরুতর জখম হওয়ায় সুজনের ডান চোখটি নষ্ট হয়ে গেছে। এ ঘটনার পর থেকে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। কোতোয়ালি থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে একটি মামলা করা হয়েছে।