বুড়িগঙ্গা-তুরাগে উচ্ছেদ অভিযান আরও ৯৮টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

প্রকাশ: ১৯ এপ্রিল ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

বুড়িগঙ্গা ও তুরাগ তীরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে তৃতীয় পর্বের উচ্ছেদ বা অপসারণ অভিযানের দ্বিতীয় পর্যায় শেষ হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ের অভিযানের শেষ দিন বৃহস্পতিবার রাজধানীর তুরাগ থানার কামারপাড়া এলাকায় তুরাগ তীরের আরও ৯৮টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

এদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত কামারপাড়া সংলগ্ন মাছিমপুর মৌজা এলাকায় তুরাগ নদের উভয় তীরে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। এটি ছিল চলমান উচ্ছেদ অভিযানের ৩০তম দিন। এদিন বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযানকালে ১১টি একতলা পাকা ভবন, ১০টি আধা পাকা ভবন, ২০টি টিনশেড, পাঁচটি ওয়্যার হাউস, সাতটি সীমানা প্রাচীর এবং ৪৫টি টিনের ঘরসহ মোট ৯৮টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এ সময় অবৈধভাবে নির্মিত ছয়টি বালুর গদি অপসারণ করে তাৎক্ষণিক নিলামে ৭৪ লাখ ৭৬ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। এ ছাড়া চার একর তীর ভূমি অবমুক্ত করা হয়।

তৃতীয় পর্বের এই উচ্ছেদ অভিযানের তৃতীয় পর্যায় আগামী ২৩ থেকে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে। চতুর্থ ও শেষ পর্যায়ে ৩০ এপ্রিল থেকে ২ মে পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান চালাবে বিআইডব্লিউটিএ।

বিআইডব্লিউটিএ সূত্র জানায়, গতকাল পর্যন্ত ৩০ দিনের উচ্ছেদ অভিযানে বুড়িগঙ্গা ও তুরাগ তীর থেকে মোট তিন হাজার ১৭৭টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হলো। এই অভিযানে এখন পর্যন্ত অবমুক্তকৃত জায়গার পরিমাণ প্রায় ৮৩ একর এবং মোট নিলামের টাকার পরিমাণ ৪ কোটি ৫ লাখ ৭৮ হাজার (ভ্যাট-আয়করসহ)।