ঘোষণা ছাড়া অস্ত্র বহন শাহজালালে গ্রেফতার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান

প্রকাশ: ১৯ এপ্রিল ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বিমানবন্দরে প্রবেশের অভিযোগে মুজিবর রহমান শামিম নামে বরিশালগামী এক যাত্রীকে আটক করে থানায় সোপর্দ করেছেন নিরাপত্তা কর্মীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে এ ঘটনা ঘটে। আগ্নেয়াস্ত্রসহ আটক ব্যক্তি হলেন বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও চিতলমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি। তার হেফাজত থেকে লাইসেন্স করা একটি পিস্তল ও ১০ রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়েছে। বিমানবন্দরে স্ক্যানিং মেশিনে তল্লাশিকালে তার ওই আগ্নেয়াস্ত্র ধরা পড়ে। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় ৫৪ ধারায় একটি মামলা করা হয়।

পুলিশ ও বিমানবন্দর নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানান, গতকাল পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বিকেল সোয়া ৩টায় আগ্নেয়াস্ত্র সঙ্গে নিয়ে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে প্রবেশ করেন যাত্রী মুজিবর রহমান। বিমানবন্দরের স্ক্যানিং মেশিনে তল্লাশিকালে তার লাগেজে আগ্নেয়াস্ত্র ধরা পড়ে। সমকালের বাগেরহাট প্রতিনিধি জানান, মুজিবর রহমান শামিম চিতলমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি। তিনি চিতলমারী উপজেলার বড় উমাজুরি গ্রামের আবদুল গফুর মোল্লার ছেলে।

সম্প্রতি এর আগে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বিমানবন্দরে প্রবেশের অভিযোগে আওয়ামী লীগের তিন নেতাসহ চার ব্যক্তিকে আটক করে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়।

এ ব্যাপারে বিমানবন্দরের পরিচালক (অ্যাভসেক) বিমান বাহিনীর উইং কমান্ডার নুরে আলম সিদ্দিকী সমকালকে জানান, মুজিবর রহমান নভোএয়ারের একটি বিমানে বরিশাল যাওয়ার উদ্দেশে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বিমানবন্দরে প্রবেশ করেন। সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম নাইম হাসান জানান, পূর্ব ঘোষণা ছাড়া আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বিমানবন্দরে প্রবেশের কোনো সুযোগ নেই।