বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশ: ১৯ এপ্রিল ২০১৯

বরিশাল ব্যুরো

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এস.এম ইমামুল হকের ১৫ দিনের ছুটি মঞ্জুর হওয়ার প্রতিবাদে গতকাল বৃহস্পতিবার মানববন্ধন ও সমাবেশ কর্মসূচি পালন করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা। এ সময় তারা উপাচার্যের পূর্ণমেয়াদে ছুটিতে পাঠানো অথবা পদত্যাগ দাবি করেন। এদিকে ১৬ এপ্রিল উপাচার্য স্বাক্ষরিত এক পত্রে সোনালী ব্যাংক বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় শাখার দুটি হিসাব নম্বর থেকে কোনো ধরনের অর্থ প্রদান না করতে ব্যাংকের ব্যবস্থাপককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ আদেশের কারণে শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেতন-ভাতার টাকা তুলতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন সংশ্নিষ্টরা।

গতকাল বেলা সাড়ে ১১টায় একাডেমিক ভবনের সামনে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীদের দেড় ঘণ্টাব্যাপী যৌথ মানববন্ধনে বক্তব্য দেন শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মিয়া, সহসভাপতি সরকার কায়সার আহম্মেদ, সাবেক সহসভাপতি আরিফ হোসেন ও তানভির কায়সার, শিক্ষার্থী প্রতিনিধি লোকমান হোসেন, শফিকুল ইসলাম ও জহিরুল ইসলাম এবং কর্মচারী নেতা হারুন-অর রশিদ ও বনি আমিন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় চালাতে ব্যর্থ হয়েছেন। তার স্বৈরতান্ত্রিক নিয়ন-কানুনের মধ্যে এ বিশ্ববিদ্যালয় চলতে পারে না। তাই তাদের এখনকার দাবি হচ্ছে হয় উপাচার্যকে পূর্ণমেয়াদে (২৮ মে পর্যন্ত) ছুটিতে পাঠাতে হবে নতুবা তিনি পদত্যাগ করবেন। এ দাবি না মানা পর্যন্ত শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। উপাচার্যের পদত্যাগ অথবা পূর্ণমেয়াদে ছুটিতে যাওয়ার দাবিতে ২৭ মার্চ থেকে লাগাতার আন্দোলন করে আসছেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।