প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দেশে দক্ষ জনবল তৈরিতে ৩০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। বিশ্বব্যাংকের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (আইডিএ) এ ঋণ দিচ্ছে। কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের উদ্যোগে নেওয়া 'অর্থনৈতিক রূপান্তরের জন্য দক্ষতা উন্নয়ন (এএসএসইটি) প্রকল্পে এ অর্থ কাজে লাগানো হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর। গতকাল সোমবার ঢাকায় এ বিষয়ে ঋণ চুক্তি সই হয়েছে। সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব (ইআরডি) ফাতিমা ইয়াসমিন এবং বিশ্বব্যাংকের পক্ষে ঢাকা কার্যালয়ের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন চুক্তিতে সই করেন।\হইআরডি সূত্র জানিয়েছে, প্রকল্পটি হাতে নেওয়ার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে, নারী এবং সুবিধাবঞ্চিতসহ যুব গোষ্ঠীকে চাহিদাভিত্তিক কর্মী হিসেবে তৈরিতে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া। মোট এক লাখ মানুষ প্রকল্পের অধীনে প্রশিক্ষণ পাবে। প্রকল্পের মূল কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে সংশ্নিষ্ট সরকারি সংস্থার প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বাড়ানোর মাধ্যমে লক্ষ্যভুক্ত জনগোষ্ঠীর দক্ষতা উন্নয়ন, বাজার চাহিদা অনুযায়ী অগ্রাধিকারভিত্তিক খাতের জন্য স্বল্পমেয়াদি কোর্সের সংখ্যা বৃদ্ধি ও এসব কোর্সে ডিপ্লোমা অন্তর্ভুক্ত করা।

প্রকল্পের অংশীদার বাস্তবায়নকারী হিসেবে রয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগ। আগামী ২০২৬ সালের ডিসেম্বরে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। ৫ বছরের রেয়াতকালসহ ৩০ বছরে ঋণ পরিশোধ করবে বাংলাদেশ। ঋণের উত্তোলিত অর্থের ওপর বছরে শূন্য দশমিক ৭৫ শতাংশ সেবা চার্জ এবং ১ দশমিক ২৫ শতাংশ সুদ ধার্য রয়েছে এই ঋণে। চুক্তির মোট ঋণের যে পরিমাণ অর্থ উত্তোলন করা হবে না, সে পরিমাণের ওপর শূন্য দশমিক ৫০ শতাংশ হারে কমিটমেন্ট ফি ধার্য করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন