চীনের প্রযুক্তি সহায়তা চায় ঢাকা চেম্বার

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

কৃষি প্রক্রিয়াজাতকরণ খাতে বিনিয়োগ এবং শিল্পকারখানায় প্রযুক্তির আধুনিকায়নে চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ডিসিসিআই) নেতারা। একই সঙ্গে তারা দেশটির উদ্যোক্তাদের এখানে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন।

ঢাকা সফররত চীনের লিয়াওনিং ফেডারেশন অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির প্রতিনিধিদের সঙ্গে গতকাল সোমবার বৈঠকে এসব কথা বলেন ঢাকা চেম্বারের নেতারা। রাজধানীর মতিঝিলে ডিসিসিআই ভবনে এ বৈঠকে লিয়াওনিং ফেডারেশনের চেয়ারম্যান ঝাও ইয়ানকিংয়ের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের একটি বাণিজ্য প্রতিনিধি দল অংশ নেয়।

বৈঠক শেষে বাণিজ্য সহযোগিতা বাড়াতে ডিসিসিআইর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ওয়াকার আহমেদ চৌধুরী এবং লিয়াওনিং ফেডারেশনের চেয়ারম্যান ঝাও ইয়ানকিং একটি সমঝোতা চুক্তিতে সই করেন।

ওয়াকার আহমেদ বলেন, বাংলাদেশে কৃষি ও কৃষিজাত পণ্য এখন দ্বিতীয় বৃহত্তম রফতানি খাত। বিশ্ববাজারে কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্যের রফতানি বাড়ানোর পাশাপাশি এ খাতে পণ্য বহুমুখীকরণে চীনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানো যেতে পারে। বিশেষ করে প্রযুক্তিগত আধুনিকায়নে সহযোগিতা করতে পারে তারা। তিনি জানান, কৃষি খাতে চীনের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের তিন কোটি ডলারের বেশি বিনিয়োগের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তৈরি পোশাক, ওষুধ, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, ইলেকট্রনিক্স ও অটোমোবাইলসহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ আরও বাড়াতে সফররত প্রতিনিধি দলের প্রতি আহ্বান জানান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি।

ঝাও ইয়ানকিং বলেন, লিয়াওনিং প্রদেশ চীনের উত্তর-পূর্ব দিকে অবস্থিত, যা ভৌগোলিক অবস্থানের দিক থেকে জাপান, উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও মঙ্গোলিয়ার বেশ নিকটবর্তী। এ অঞ্চলের দেশগুলোতে রফতানি বাড়াতে তিনি বাংলাদেশের উদ্যোক্তাদের খনিজ সম্পদে সমৃদ্ধ লিয়াওনিং প্রদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।