ইপিএস বেড়েছে ইসলামিক ফাইন্যান্সের

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ছয় মাসে আমানত, বিনিয়োগ ও শেয়ারপ্রতি আয়ে (ইপিএস) শীর্ষস্থানীয় ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইসলামিক ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড (আইএফআইএল) ভালো অবস্থানে রয়েছে। ব্যবসায় ধারাবাহিকতা, কমপ্লায়েন্স ও অভ্যন্তরীণ সুশাসনের কারণে আর্থিক খাতে নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও কোম্পানিটি সব সূচকেই অন্যদের চেয়ে এগিয়েছে।

চলতি বছরের জুন শেষে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় আমানতের পরিমাণ প্রায় ১৩৮ কোটি টাকা বেড়েছে। অর্ধবার্ষিক হিসাবে আমানতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে দশমিক ৯৮ শতাংশ। এ সময়ে ইপিএস ৬৬ পয়সায় দাঁড়িয়েছে, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫৮ পয়সা। এ হিসাবে ইপিএস ১৩ দশমিক ৭৯ শতাংশ বেড়েছে। প্রবৃদ্ধির এ হার অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের চেয়ে ভালো।

আইএফআইএলের নীতিনির্ধারকরা বলেন, গ্রাহকের আস্থাই তাদের কোম্পানির মূল চালিকাশক্তি। তারা বলেন, দেশের প্রথম ইসলামী শরিয়াহ্‌ভিত্তিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে আইএফআইএল স্বচ্ছতা-জবাবদিহি ও সময়োপযোগী পরিকল্পনার মধ্য দিয়ে নিজেদের এগিয়ে রাখতে কাজ করছে। ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে তারা আশা প্রকাশ করেন।

২০০১ সালে বাণিজ্যিকভাবে যাত্রা শুরু করা কোম্পানিটির বিনিয়োগ গত পাঁচ বছরে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে এবং আমানত বেড়েছে প্রায় তিন গুণ। একই সময়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়ে সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৬৭৭ কোটি টাকায়। চলতি বছরের জানুয়ারিতে কোম্পানিটি তিনটি নতুন পণ্য- মুদারাবা আসান ডিপোজিট স্কিম, রাহা (কমফোর্ট) ও সিলা উল ইসতিহ্‌লাক (কমোডিটি) এনেছে। এ ছাড়া তিনশ' কোটি টাকার মুদারাবা বন্ড ইস্যুর প্রক্রিয়া চলছে। কোম্পানিটি চলতি বছর ফাইন্যান্স কোম্পানি অব দ্য ইয়ার-বাংলাদেশ ২০১৯ ক্যাটাগরিতে এশিয়ান ব্যাংকিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ সিঙ্গাপুর পুরস্কার পেয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।