অর্ষা। মডেল ও অভিনেত্রী। সম্প্রতি 'ক্রেজি হাজব্যান্ড' শিরোনামে একক নাটকে অভিনয় করছেন। পাশাপাশি ব্যস্ত আছেন ধারাবাহিকে অভিনয় নিয়ে। কথা হলো

তার সঙ্গে-

'ক্রেজি হাজব্যান্ড' নাটকের প্রেক্ষাপট কী নিয়ে?

এটি পারিবারিক ও ভালোবাসার দ্বন্দ্বের নাটক। রাফিন চরিত্রটি ঘিরে গল্পটি গড়ে উঠেছে। সে অস্থির প্রকৃতির। সমাজের আট-দশটি ছেলের মতো সে নয়। বিয়ের পর রাফিন আরও বেশি বদলাতে থাকে। পরিবারের সদস্য, আশপাশের মানুষ, বন্ধুদের সঙ্গে এমনকি অফিসের সহকর্মীদের কাছেও সে হয়ে যায় অন্যরকম মানুষ। রাফিন নিজেকে সবসময় ছোট করে রাখে। স্ত্রী নিশির সঙ্গে সংসার শুরুর পর তার জটিলতা আরও বাড়তে থাকে।

আপনার অভিনীত চরিত্রটি কেমন?

আমার অভিনীত চরিত্রের নাম নিশি। যে একটু আধুনিক মনমানসিকতার। স্বামীর এমন অস্থিরতা সে মেনে নিতে পারে না। চরিত্রটিতে এ সময়ের নারীদের প্রতিচ্ছবি ফুটে উঠেছে। আর এ জন্য নাটকটির রচয়িতা ও নির্মাতা সজল আলী কাইজেনকে ধন্যবাদ দিতে হয়। তিনি বেশ যত্ন নিয়ে এটি নির্মাণ করেছেন। এতে আমার স্বামীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন মিশু সাব্বির।

ধারাবাহিকে ব্যস্ততা কেমন?

বেশ কয়েকটি ধারাবাহিকের শুটিংয়ে নিয়মিত অংশ নিতে হচ্ছে। এর মধ্যে ঘুমন্ত শহরে, শান্তিপুরীতে অশান্তি, আকাশছোঁয়া স্বপ্ন বেশ কয়েকটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে।

আপনাকে প্রায় সময়ই একেবারে নতুন নির্মাতার নাটকে অভিনয়ে দেখা যায়...

মিডিয়ায় নির্মাতাদের অনেকে নতুন। অনেকের ব্যাকগ্রাউন্ড না থাকলেও ডেডিকেশন অনেক। নতুনদের রুচি বা চিন্তার ধরন হয়তো একটু অন্য রকম, সেটা আমাদের গ্রহণ করা উচিত। স্ট্ক্রিপ্ট ভালো বলে অনেক সময় নতুন অনেকের সঙ্গে কাজ করি।

চলতি বছর নিয়ে আপনার মূল্যায়ন কী?

ভীষণ ভালো কেটেছে। এ বছর বেশ কিছু কাজ আলোচনায় ছিল। পাশাপাশি কাজগুলোর জন্য অনেক প্রশংসাও পেয়েছি। যেমন ওয়েব সিরিজ 'দ্বিতীয় কৈশোর', 'মধ্যরাতের সেবা' নাটকটি আলোচিত ছিল। এ ছাড়াও রুনা লায়লা ফিচারিং 'লেজেন্ডস ফরএভার অ্যালবাম'-এ কাজ করেও প্রশংসা পেয়েছি। এতে রুনা লায়লার সুরে গান গেয়েছেন আশা ভোঁসলে। গানটির মিউজিক ভিডিওতে পারফর্ম করেছি। এই কাজটি আমার জন্য আশীর্বাদের মতো। ভীষণ ভালো লাগছে এমন একটি কাজে অংশ হতে পেরে। শুভকামনা পাচ্ছি চারপাশ থেকে। দর্শক-শ্রোতাদের কাছ থেকেও প্রশংসা পাচ্ছি। সবার কাছে দোয়া চাই যেন এভাবে কিছু কাজ করতে পারি।

নতুন বছরের পরিকল্পনা কীভাবে সাজাচ্ছেন?

সেভাবে পরিকল্পনা করে কখনও কিছু হয় না। আমি কখনও পরিকল্পনা করে এগোতে পারি না। কারণ প্ল্যানিং করতে গেলে বর্তমানটা খারাপ হয়ে আসে। যেটা করি সবসময় মনোযোগ সহকারে করার চেষ্টা করি, এটাই

আমার মূলমন্ত্র।

সিনেমায় অভিনয় নিয়ে কিছু ভাবছেন?

একটি সিনেমা করার কথা ছিল, শেষ পর্যন্ত হয়নি। ভালো গল্প পেলে, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে করব। কোন শিল্পী একটা ভালো সিনেমায় অভিনয় করতে

চান না বলুন।

হ সমু সাহা

মন্তব্য করুন