ফার্স্ট পারসন শুটার গেম 'হ্যালো ইনফিনিটি' 'হ্যালো' সিরিজের ষষ্ঠ গেম। গত বছরের ৮ ডিসেম্বর উন্মোচিত গেমটি এতদিন শুধু সিঙ্গেল প্লেয়ার মোডেই খেলা যেত। তবে এবার গেমটিতে বড়সড় আপডেট এসেছে। গেমটিতে মাল্টিপ্লেয়ার সংস্করণ নিয়ে এসেছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান থ্রিফোরথ্রি ইন্ডাস্ট্রিজ। ইনফিনিটি সিরিজে এই প্রথমবার কোনো গেমে মাল্টিপ্লেয়ার মোড যুক্ত করা হয়েছে। ড্যান চোসিচের লেখা প্লটের ওপর ভিত্তি কিরে নির্মিত গেমটি প্রকাশ করেছে এক্সবক্স গেম স্টুডিওস। এটির কম্পোজিশন করেছেন অ্যালেক্স বোরে। 'হ্যালো ইনফিনিটি' একক মোড, অনলাইন কো-আপ মাল্টিপ্লেয়ার মোড এবং অনলাইন ভার্সাস মাল্টিপ্লেয়ার মোডে খেলা যাবে। অনলাইনে খেলার সময় প্রতিটি দলে চারজন অথবা ১২ জনকে খেলতে হবে।

যাতে খেলা যাবে :এক্সবক্স ওয়ান, এক্সবক্স সিরিজ এক্স এবং সিরিজ এস ও মাইক্রোসফট উইন্ডোজে খেলা যাবে গেমটি।

কাহিনি :গেমটির প্লট সাজানো হয়েছে 'হ্যালো' সিরিজের সর্বশেষ প্রকাশিত সংস্করণ 'হ্যালো ফাইফ' অনুসরণ করে। আগের গেমের শেষ থেকেই শুরু হয় 'হ্যালো ইনফিনিটি'। সম্পূর্ণ কাল্পনিক এক জগৎ, যেখানে বিভিন্ন পক্ষের মধ্যে যুদ্ধ লেগেই থাকে। এখানে অ্যাট্রিওক্স নামে একজনের নেতৃত্বে শক্তিশালী দল আছে। এ দলের হয়েই যুদ্ধে অংশ নিতে হবে গেমারদের। শুরুতে অ্যাট্রিওক্সের দলের লড়াই হয় মাস্টার চিফের সঙ্গে। লড়াইয়ে মাস্টার চিফের দলকে পরাজিত করে অপরাজিত থাকে অ্যাট্রিওক্সের দল। যুদ্ধের পর মাস্টার চিফের দলের জীবিত সদস্যদের মহাকাশে ফেলে দেওয়া হয় এবং পুরো দল ধ্বংস হয়ে যায়। সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকে অ্যাট্রিওক্সের দলের। তবে ছয় মাস যেতে না যেতেই আরও এক দল আক্রমণ চালায় তাদের ওপর। এবারের দলের নাম পেলিকান ইকো ২১৬। ইউএনএসসি নামক এক মহাকাশ যানে চড়ে তারা আক্রমণ করে অ্যাট্রিওক্সের দলের ওপর। তারাও বেশি দিন টিকতে পারে না। অ্যাট্রিওক্সের আক্রমণের কাছে ধরাশায়ী হয়ে অল্পদিনের মধ্যে ধ্বংস হয়ে যায় ইউএনএসসি। গেমার যত বেশি গেমের সামনের দিকে এগোতে থাকবে, প্রতিপক্ষের আক্রমণ তত কঠিন আর শক্তিশালী হবে। মহাকাশের এসব অজানা শত্রুর আক্রমণের ভয় আর অ্যাডভেঞ্চারের দারুণ এক মিশ্রণ আছে এ গল্পে। যাঁরা কল্পনা করতে ভালোবাসেন, তাঁরা বাড়তি রোমাঞ্চ পাবেন এই গেমে। এ যুদ্ধ সংঘটিত হয় সৌরজগতের কোনো এক কাল্পনিক অংশে। গেমারদের এখানে বিভিন্ন প্রতিকূলতার মুখে পড়তে হয়। অ্যাডভেঞ্চারের পাশাপাশি মহাকাশে ঘুরে বেড়ানোরও অনুভূতি পাবেন গেমাররা।

খেলতে ন্যূনতম পিসি সিস্টেম :ওএস :উইন্ডোজ ১০, প্রসেসর :ইন্টেল কোর আই ৫/এএমডি এফ-এক্স ৮৩৭০। র‌্যাম :৪ জিবি, জিপিইউ :এনভিডিয়া জিফোর্স জিটেক্স ৬৫০, ১ জিবি/এএমডি রেডিয়ন এইচডি, ১ জিবি।